× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার

দক্ষিণ আফ্রিকায় ইতিহাস গড়লো ভারত

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার, ১:৫৮

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এর আগে কখনোই সিরিজ জেতেনি ভারত। সেই ইতিহাস বদলাতেই বিরাট কোহলির নেতৃত্বে আফ্রিকায় গিয়েছিল তারা। গতকাল সিরিজের পঞ্চম ওয়ানডেতে প্রোটিয়াদের ৭৩ রানে হারায় ভারত। এর অগে টেস্ট সিরিজে হারলেও, এ জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখে ওয়ানডে সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে জিতে নিলো সফরকারীরা। আর প্রোটিয়াদের মাটিতে প্রথমবারের মতো কোন সিরিজ জিতে নতুন ইতিহাস গড়লো ভারত। এদিন টসে জিতে ভারতকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠায় দক্ষিণ আফ্রিকার ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক এডউইন মার্করাম। ব্যাট হাতে ওপেনার রোহিম শর্মার সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে ২৭৪ রান সংগ্রহ করে ভারত। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে এটা রোহিতের ১৭তম সেঞ্চুরি।
ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই মারমুখী খেলতে থাকেন ভারতীয় দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা। দলীয় ৪৮ রানের মাথায় কাগিসো রাবাদার বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন ধাওয়ান। ২৩ বলে ৮ চারে ৩৪ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। পরে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১০৫ রান যোগ করেন রোহিত শর্মা ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি। পরে দলীয় ১৫৩ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৩৬-এ রান আউটের শিকার হন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কোহলি। এরপর  আজিঙ্কা রাহানেও ৮ রান করে রাউট হন। পরে দলীয় ২৩৬ রানে পেসার লুঙ্গি এনগিডির বলে রোহিত ফিরে গেলে দ্রুত উইকেট হারাতে থাকে ভারত। ১২৬ বলে ৪ ছক্কা ও ১১ চারে ১১৫ রান করেন এ ভারতীয় ওপেনার। শেষ পর্যন্ত শ্রেয়াশ আয়ার ৩০, ভুবনেশ্বর কুমার ১৯ ও মহেন্দ্র সিং ধোনির ১৩ রানে ২৭৪ রান সংগ্রহ করে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৫১ রানে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট পেসার লুঙ্গি এনগিডি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৮ ওভার বাকি থাকতে ২০১ রানে অলআউট হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। এদিন অধিনায়ক এইডেন মার্করাম ও হাশিম আমলার ব্যাটে ভালো সূচনা পায় স্বাগতিকরা। দলীয় ৫২ রানে অধিনায়ক মার্করাম ৩২ রানে বুমরার বলে আউট হন। পরে হার্দিক পান্ডিয়ার করা পর পর দুই ওভারে জেপি ডুমিনি ১ ও এবি ডি ভিলিয়ার্সক ৬ রানে ফিরলে চাপে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। পরে চতুর্থ উইকেটে ডেভিড মিলারকে সঙ্গে নিয়ে ৬২ রানের জুটি গড়ে দলকে ম্যাচে ফেরানোর চেষ্টা করেন আমলা। দলীয় ১২৭ রানে ব্যক্তিগত ৩৬ রান করে যুজবেন্দ্র চাহালের বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন মিলার। এর পরের ইতিহাস শুধু চাহাল ও কুলদিপ যাদবের। এ দুই স্পিনারের ঘূর্ণিতে ৭৪ রান দূরে থেকেই শেষ হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। ওয়ানডে সিরিজে রান না পাওয়া আমলা এদিন ৭১ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া হেনরিচ ক্লাসেন ৩৯ রান করেন। ভারতের হয়ে বল হাতে ৫৭ রান সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন কুলদিপ যাদব। এছাড়া দু’টি করে উইকেট নেন পান্ডিয়া ও চাহাল। ম্যাচসেরা হন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। আগামী শুক্রবার সেঞ্চুরিয়নে ৬ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দু’দল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর