ঢাকা, ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার

শিশু ধর্ষণের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার | ৯ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার, ১১:৩২

রাজধানীর কদমতলীতে শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে জামিয়া ইসলামিয়া দারুল ইহসান মাদরাসার শিক্ষক আলাউদ্দিন পাটোয়ারীকে (৪০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার মাদরাসার তৃতীয় তলার একটি কক্ষে নিয়ে ১০ বছরের ওই শিশুকে ধর্ষণ করেন শিক্ষক। বিষয়টি অন্য শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে জানাজানি হলে সন্ধ্যায় এলাকাবাসী আলাউদ্দিন পাটোয়ারীকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।


kazi

৯ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার, ১২:১৮

মাদ্রাসা বলতে ইসলামি শিক্ষা কেন্দ্র। সেখানেই যদি খোদ শিক্ষক ইসলাম বিরোধী কাজ করে তবে তারা কি শিক্ষা দিবে ইসলাম ধর্মের। আমি দীর্ঘদিন ধরে প্রস্তাব করছি ধর্ষণ বন্ধ করতে হলে খোঁজা বানানোর আইন ছাড়া বিকল্প নাই। তুরস্কে ইতিমধ্যে আইন হয়ে গেছে নপুংসক করার। বাংলাদেশ তা অনুসরণ করা উচিত । কঠোর আইন করায় এক সময়ের এসিড সন্ত্রাস বন্ধ হয়েছে। তাই প্রধান মন্ত্রী ও সাংসদদের কাছে অনুরোধ তুরস্কের আইন করুন।

Sk.lokman.hossain

৯ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার, ৩:৩৪

মহান আল্লাহ্ তা'আলা আমাদের সবাইকে হিদায়েত নসীফ করুন আমীন।

মো: রেজাউল ইসলাম ,আর

৯ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার, ৬:০৬

ঐশী বিধান অনুযায়ী বিচার করেন হবে ।

সিদ্দীক

১১ মার্চ ২০১৮, রোববার, ৩:৩৮

১০ জন লোকের মধ্যে যদি একজন পাপ করে তাহলে দশজনের উপর তা কেন অর্পিত হবে!!!?