× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার

সাভারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | ৯ মার্চ ২০১৮, শুক্রবার, ১১:৩৪

সাভারের আশুলিয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার রুবেল মিয়া মারা গেছে। এ ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের এক এসআই ও এএসআইসহ ৪ পুলিশ আহত হয়েছে। শুক্রবার ভোররাতে আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  

নিহত ডাকাত সর্দার রুবেল মিয়া (৩৮) টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানার লক্ষিনদার গ্রামের লাল মাহমুদের ছেলে। ডিবি পুলিশ ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত এক মাস আগে টাঙ্গাইল থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহী বাসের চালককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে ডাকাতি করে একদল ডাকাত। ওই ঘটনায় মামলা দায়েরের পর ঢাকা জেলা উত্তরের গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সদস্যরা ডাকাতদের গ্রেপ্ততার করতে শুক্রবার ভোররাতে আশুলিয়ার টংগাবাড়ি এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় ডাকাতরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হামলা চালায়। পরে পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে রুবেল মিয়া নামের ওই ডাকাত সর্দার গুলিবিদ্ধ হয়।
ডাকাতদের হামলায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এঘটনায় গুলিবিদ্ধ ডাকাত রুবেল মিয়াকে উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন। সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডা. ফেরদৌসি আক্তার বলেন, নিহত ডাকাতের বুকে গুলির চিহ্ন রয়েছে। আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মো. আজাদ বলেন, পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক ডাকাত নিহত এবং ডিবি পুলিশের এস আই তানভীর মোর্শেদ, এ এস আই সেলিম মিয়া ও কনস্টেবল নয়ন আহমেদসহ চারজন আহত হয়েছে। তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া নিহত ডাকাতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার নামে দেশের বিভিন্ন থানায় হত্যা, ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানায় ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর