ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৮, সোমবার

জমে উঠেছে বগুড়ার স্বাস্থ্যমেলা

বগুড়া প্রতিনিধি | ১১ মার্চ ২০১৮, রোববার, ৮:৪৬

ছুটির দিনে জমে উঠেছে বগুড়ার খাদ্য ও স্বাস্থ্যমেলা। বগুড়ায় প্রথম বারের মতো চার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্বাস্থ্যমেলা। অপরদিকে দ্বিতীয় বারের মতো হচ্ছে খাদ্যমেলা। দুইমেলা একসঙ্গে হওয়ায় দর্শনার্থীদের মধ্যে সাড়া ফেলতে পেরেছে। শহরের শহীদ টিটু মিলনায়তনে চলছে এ মেলা। শুক্র ও শনিবার ছুটির দিন থাকায় শুরুর দিনের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি দর্শনার্থী আসেন মেলায়। মেলায় অংশগ্রহণকারী দেশের স্বনামধন্য ফুড অ্যান্ড এগ্রো কোম্পানি এবং স্বাস্থ্য সেবাদানকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্টলে গিয়ে দর্শনার্থীরা তাদের সেবাসমূহের খোঁজখবর নেন। বগুড়ায় চার দিনব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন হয়েছে বৃহস্পতিবার বিকালে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতি ছিলেন পল্লী উন্নয়ন একাডেমির ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক একেএম জাকারিয়া। প্রধান অতিথি হিসেবে বেলুন উড়িয়ে মেলার শুরু করেন সহকারী পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী। মেলার আয়োজক বগুড়ার স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ইভেন্ট ক্রিয়েটর। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইভেন্ট ক্রিয়েটরের প্রধান নির্বাহী ইঞ্জিনিয়ার মাহমুদুল হাসান। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্যাংকার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহম্মেদ, পল্লী উন্নয়ন একাডেমির পরিচালক ড. সমীর কুমার সরকার, নার্গিস জাহান ও বামমার সভাপতি আলহাজ শেখ।
মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর অন্যতম একটি পল্লী উন্নয়ন একাডেমি। ওই স্টলের দায়িত্বে থাকা জিনিয়া নাসরিন জানান, পল্লী উন্নয়ন একাডেমির নিজস্ব উৎপাদিত প্রায় ২৫ প্রকার পণ্যের প্রদর্শনী হচ্ছে। তিনি জানান, এসব পণ্যের মধ্যে টমেটো সস, বিভিন্ন ফলের আচার, মধু, দই ও মিষ্টির চাহিদা বেশি। মেলায় আসা দর্শনার্থীরা এসব পণ্য দেখার পাশাপাশি কিনেও নিচ্ছেন।  মেলায় ঘুড়তে আসা বগুড়া শহরের সেউজগারী এলাকার জেসমিন আক্তার জানান, বগুড়ায় এই প্রথম স্বাস্থ্যমেলা হচ্ছে। এখানে স্বাস্থ্য সেবাদানকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সচেতনতামূলক লিফলেট, স্বাস্থ্য নির্দেশিকা সাধারণের মধ্যে বিলি করছে। এতে অনেকেই তাদের স্বাস্থ্য নিয়ে নতুন করে ভাবতে পারবে।
মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- টিএমএসএস কৃষি উৎপাদন বিভাগ, রুপালী ব্যাংক লি., কিবরিয়া এগ্রো ইন্ড, পুমা বাংলাদেশ মেশিনারি লি., সোনালী ব্যাংক লি., তামিম এগ্রো লি., আকবরিয়া গ্রুপ, পদ্মা ফুডস, দীপাবলী, মিস্টার্স কিচেন, স্বদেশ হসপিটাল, পপুলার ফার্মা, পপুলার ডায়াগনস্টিক, ইবনে সিনা ডায়াগনস্টিক, ল্যাব এইড ডায়াগনস্টিক, এঞ্চেল হোম ডায়াগনস্টিকসহ দেশের স্বনামধন্য ফুড অ্যান্ড এগ্রো কোম্পানি এবং স্বাস্থ্য সেবাদানকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মেলা। দর্শনার্থীদের জন্য সন্ধ্যায় মেলা মঞ্চে থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
মেলার আয়োজক ইভেন্ট ক্রিয়েটরের প্রধান নির্বাহী ইঞ্জিনিয়ার মাহমুদুল হাসান জানান, খাদ্য ও স্বাস্থ্য এই দুয়ের সঙ্গে সমন্বয় করেই মানুষ ভালো থাকতে পারে। বিশেষ করে আমাদের দেশে খাদ্যের ভেজাল দেয়া নিয়ে অনেক অভিযোগ আছে। এই ভেজাল খাদ্যের মধ্যে অনেক প্রতিষ্ঠান নির্ভেজাল খাদ্য তৈরি করছে। এসব খাদ্য এই মেলার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়ার একটা প্রয়াস চালানো হচ্ছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।