× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

প্রেমিকার বাড়িতে ডেকে নিয়ে কলেজছাত্রকে হত্যা

বাংলারজমিন

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি | ১১ মার্চ ২০১৮, রবিবার, ৯:০৪

ঝিনাইগাতীতে প্রেমিকার পরিবারের হাতে খুন হয়েছে কলেজছাত্র চান মিয়া। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে নলকুড়া ইউনিয়নের গুমড়া গ্রামে। নিহত চাঁন মিয়া গুমড়া গ্রামের আছমত আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ প্রেমিকা মুক্তার ভাই হৃদয়কে গ্রেপ্তার করেছে। সূত্র জানায়, প্রতিবেশী আবদুর রহমানের কলেজ পড়ুয়া মেয়ে মুক্তার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর অনার্স পড়ুয়া চান মিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাদের এ সম্পর্কটি মুক্তার পরিবার মেনে নিতে পারেনি। এ ঘটনার সূত্র ধরে শুক্রবার রাতে মুক্তার ভাই হৃদয় জরুরি কথা বলার জন্য চান মিয়াকে মুক্তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসে। বাড়িতে প্রবেশ করা মাত্রই চান মিয়াকে আকস্মিকভাবে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে চান মিয়াকে ধারালো চুরি দিয়ে তার পেটে আঘাত করে। এ সময় মুক্তা চান মিয়াকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তার বাবা-মা মুক্তাকে হাত বেঁধে অন্য ঘরে রেখে চান মিয়ার উপর আক্রমণ করতে থাকে। মুক্তা অনেক কষ্টে তার হাতের বাঁধন খুলে চান মিয়ার পরিবারকে খবর দেয়। চান মিয়ার পরিবার এসে দেখে চান মিয়ার নিথর দেহ ঘরের মেঝেতে পড়ে আছে। এ অবস্থায় প্রেমিকা মুক্তা ও চান মিয়ার পরিবারের লোকজন রাত ১.৩০ মিনিটে ঝিনাইগাতী হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চান মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ মুক্তার ভাই রিয়াজুল ইসলাম হৃদয়কে গ্রেপ্তার করেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর