× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার

রূপগঞ্জে এমরান হত্যা মামলার ২ আসামি গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১১ মার্চ ২০১৮, রবিবার, ৯:০৯

রূপগঞ্জে আলোচিত কলেজ শিক্ষার্থী এমরান হোসেন হত্যা মামলার দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। শুক্রবার রাতে উপজেলার সুরিয়াবো ও হারিন্দা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল গ্রেপ্তারদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে ডিবি পুলিশ। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মফিজুল ইসলাম জানান, গত বছরের ২০শে সেপ্টেম্বর রাতে রূপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের হারিন্দা এলাকার মৃত মমিন মিয়ার ছেলে ও স্থানীয় আব্দুল হক ভূইয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী এমরান হোসেন (২০)কে বাড়ি থেকে ডেকে নেয় কয়েকজন। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। বহু খোঁজাখুঁজির পরও না পেয়ে তার বড় ভাই মোস্তফা রূপগঞ্জ থানার একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। চলতি বছরের ১৪ই ফেব্রুয়ারি নিখোঁজ এমরানের বাড়ির পাশে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে মস্তক ও হাত-পাবিহীন একটি গলিত লাশ উদ্ধার করে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ। এ সময় নিখোঁজের পরিবার লাশটি এমরান হোসেনের বলে দাবি করেন।
এ দাবির প্রেক্ষিতে নিহতের বড় ভাই মোস্তফা বাদী হয়ে ২৩শে ফেব্রুয়ারি সাত জনকে এজাহার নামীয় আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়। সে মামলার ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে প্রযুক্তির সহায়তায় এমরান হোসেনের ব্যবহৃত মুঠোফোনটির অবস্থান নিশ্চিত করে পুলিশ। পরে অভিযান চালিয়ে সুরিয়াবো এলাকার আয়েত আলীর ছেলে গোলাম রসুল (২৩) ও হারিন্দা এলাকার মৃত মালে মোহাম্মদের ছেলে রুবেল মিয়া (৩৬)কে গ্রেপ্তার করে তারা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা কয়েকজনের সহযোগিতায় এমরান হোসেনকে হত্যা করেছে বলে স্বীকার করেছেন।
গতকাল সকালে আরো ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটকদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এসআই মফিজুল ইসলাম।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর