ঢাকা, ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার

মানববন্ধন থেকে শ্লীলতাহানির বিচার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার | ১১ মার্চ ২০১৮, রোববার, ৯:৪৪

যৌন নিপীড়নের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে নির্যাতনের শিকার অদিতি বৈরাগীর বন্ধুরা। রাজধানীর শাহবাগে গতকাল বিকাল ৪টায় এই মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বিতার্কিক সমাজের ব্যানারে এই মানববন্ধন থেকে অবিলম্বে যৌন নিপীড়নকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবি করে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ৭ই মার্চ ক্ষমতাসীন দলের রাজনৈতিক সমাবেশ ছিল। ওইদিন একদল যৌন নিপীড়ক জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে নারীদের যৌন হয়রানি করেছে। তারা জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে নিজেদের অপরাধ ঢাকতে চেষ্টা করেছে। তাদের নির্যাতনে অনেকে নীরব কান্নাকাটি করেছেন। সাহস করে কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন। মামলাও করা হয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত জড়িতদের কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। বক্তারা বলেন, আমাদের বিতার্কিক বন্ধু অদিতি বৈরাগীসহ ওইদিন যৌন হয়রানির শিকার নারীরা পরবর্তীতে অনলাইনে আরও অনেক নিগ্রহের শিকার হয়েছেন। বিভিন্নভাবে তাদের প্রতিবাদের কণ্ঠ রোধ করে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। এখন প্রতিনিয়ত সারা দেশে নারীরা নিপীড়িত হচ্ছে। আমরা বির্তকের চর্চা করি, একটি যুক্তিশীল সুস্থ সমাজ গঠনের অভিপ্রায় থেকে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার নৈতিক দায়িত্ব থেকে আজ রাজপথে দাঁড়িয়েছি। একইভাবে সবাইকে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে, নিপীড়কদের শাস্তির দাবিতে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তারা বলেন, নিপীড়করা যতই প্রভাবশালী হোক তাদের গ্রেপ্তার করে অবিলম্বে আইনের আওতায় আনতে হবে। রক্ত দিয়ে এদেশ স্বাধীন হয়েছে। এই স্বাধীন দেশটি যৌন নিপীড়কদের জন্য না। ক্ষমতাসীনদের তা প্রমাণ করতে হবে। মানববন্ধনে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের বিতার্কিকরা অংশগ্রহণ করেন। এতে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক প্রিন্স, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির (ইংলিশ ডিবেট) যুগ্ম আহ্বায়ক তালিম হাসান রিজভী, মুশফিক উস সালেহীন, প্রভাষক তাহমিদা খানম, মুরাদ হোসেন রনি, সানজিদা রহমান ইলু প্রমুখ।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।