× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার

‘যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করে থাকতে পারে ইহুদি ও সংখ্যালঘুরা’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ মার্চ ২০১৮, রবিবার, ১:১২

যুক্তরাষ্ট্রে গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপের দায় এবার ইহুদি ও রাশিয়ায় অন্যান্য সংখ্যালঘুদের ঘাড়ে চাপিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন, রাশিয়ান নয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করে থাকতে পারে রাশিয়ায় তাতার, ইউক্রেনিয়ান সহ অন্যান্য সংখ্যালঘু ও ইহুদিরা। এনবিসি নিউজকে তিনি এ বিষয়ে এক সাক্ষাতকার দেন। বলেন, হতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপকারীরা ইউক্রেনিয়ান, তাতার, ইহুদি। তবে তাদের রয়েছে রাশিয়ান নাগরিকত্ব। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। এ পত্রিকাটির পক্ষ থেকে বৃটেন ও যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদি সংগঠনগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।
তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের পক্ষ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায় নি। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ নির্বাচনের পর থেকেই। এ বিষয়ে তদন্ত করেছে সিআইএ। তদন্ত করছে এফবিআই। সিআইএ বলেছে, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছে মস্কো। তারা ডেমোক্রেটিক দলের যোগাযোগ বিষয়ক তথ্য হ্যাক করে ফাঁস করেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর ছড়িয়ে দিয়েছে বন্যার পানির মতো। রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবুর্গ শহর থেকে সাইবার যুদ্ধ ঘোষণার অভিযোগে ১৩ জন রাশিয়ান ও তিনটি কোম্পানিকে গত মাসে অভিযুক্ত করেছে এফবিআই। পুতিন বলেছেন, তারা রাশিয়া রাষ্ট্রের স্বার্থের প্রতিনিধিত্ব করে না। হয়তো অভিযুক্ত ওইসব ব্যক্তির দ্বৈত নাগরিকত্ব আছে। অথবা তাদের একটি গ্রিন কার্ড থাকতে পারে। হতে পারে তাদেরকে এসব কাজ করার জন্য অর্থ দিয়েছে মার্কিনিরা। ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, যদি এফবিআইয়ের তদন্তে দেখা যায় যে, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে হস্তক্ষেপের জন্য রাশিয়ার কোনো নাগরিক বা কোম্পানি দায়ী তাহলে সেই কাজটিকে রাশিয়ায় অপরাধ হিসেবে দেখা হবে না। তার ভাষায়, যতক্ষণ পর্যন্ত একজন রাশিয়ান রাশিয়ার আইন লঙ্ঘন না করবেন ততক্ষণ পর্যন্ত আইন দিয়ে একজন রাশিয়ানকে বিচার করা যাবে না। এক্ষেত্রে তিনি বলেন, আমাদের কাছে আনুষ্ঠানিক আবেদন করুন। তারপরই আমরা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবো। ওদিকে আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের কথা অস্বীকার করে আসছেন ভ্লাদিমির পুতিন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Quazi Nasrullah
১১ মার্চ ২০১৮, রবিবার, ১:৩৭

Brilliant politician Putin

অন্যান্য খবর