× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার

চড়-থাপ্পড়ে জটিল রোগের চিকিৎসা

বাংলারজমিন

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১২ মার্চ ২০১৮, সোমবার, ৮:০৭

উপজেলার জামিরতা গ্রামের আবু সামা (৫০) দীর্ঘদিন ধরে গ্যাস্ট্রিক, জন্ডিস, ডায়াবেটিস, পুরনো আমাশয়, হাড়ভাঙা, হাড়জোড়া লাগানোসহ অসংখ্য রোগের চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। গতকাল পৌর এলাকার রূপপুর, থানাঘাট ব্রিজ ও গ্রাম অঞ্চলের প্রতিটি হাটে তিনি কবিরাজগিরি করলেও তার এই প্রতারণা কেউ থামাতে পারছে না। যেকোনো রোগ হোক, বিশেষত পিঠে ব্যথা হলে ওই রোগীকে তার কাছে বসিয়ে জামা-কাপড় খুলে চড়-থাপ্পড় মারতে দেখা গেছে। এ সময় রোগী চিৎকার করলেও তাকে ভয় দেখিয়ে বলে এখনই রোগ সেরে যাবে একটু ধৈর্র্য ধরো। এরপর ওই রোগীর কাছ থেকে ২০ টাকা নিয়ে বিদায় করা হয়। এ সময় কবিরাজ আবু সামাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘পিঠের ব্যথার কিল-ঘুষি’ বিশ টাকাতে শোধ করি। এছাড়া জটিল রোগ হলে ১০০ থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত নেয়া হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে এ পেশায় জড়িত।
হামক্রোম, এ্যাংচা, পিপুল, দণ্ড কলম, মুক্ত ঝরা, বিলাই আঁচড়া, সাইকোলন, বাদাইলা-এসব গাছ দিয়ে তিনি জটিল রোগের চিকিৎসা করে আসছেন। এরকম হাতুড়ে অনেক কবিরাজ এখন গ্রামাঞ্চলের হাটবাজারগুলোয় চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে আসছেন এবং নানা ধরনের ওষুধ বিক্রি করে মানুষকে আরো জটিলতর অবস্থায় ফেলে দিচ্ছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর