ঢাকা, ২৫ জুন ২০১৮, সোমবার

কাঞ্চন পৌরসভার উপনির্বাচন রূপগঞ্জে সংঘর্ষ, হামলা, আগুন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১২ মার্চ ২০১৮, সোমবার, ৯:২৬

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঞ্চন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর সমর্থকের ওপর হামলা চালিয়েছে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা। পরে হামলাকারীরা সে সমর্থকের নির্বাচনী কাজে ব্যবহৃত অটোরিকশা আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার গভীর রাতে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার কেরাবো এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত মোকারম হোসেন জানান, তিনি কেরাবো এলাকার লোকমান মিয়ার ছেলে। আগামী ২৯শে মার্চ অনুষ্ঠিতব্য কাঞ্চন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে তার আত্মীয় মো. আসাদুজ্জামান মোল্লা কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছেন। এ কারণে তিনিসহ তার পরিবারের লোকজন আসাদুজ্জামানের পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। পাশাপাশি নির্বাচনী কাজে তার নিজস্ব একটি অটোরিকশাও ব্যবহার করছেন। এতে প্রতিপক্ষের কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম তার উপর ক্ষিপ্ত হয়। সে ও তার কর্মী সমর্থকরা বারবার মোকারম হোসেনকে নির্বাচনী কাজকর্ম থেকে সরে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছিল। এতে কর্ণপাত না করায় ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার রাতে আশরাফুলের সমর্থক বিপ্লবের নেতৃত্বে স্থানীয় হিমেল, এনামুল, নাইমসহ আরো ১০/১২ জন মোকারমকে এলোপাথারী পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মোকারম একজন মাদকাসক্ত। তার সঙ্গে আমার কর্মীদের সামান্য তর্কাতর্কি হয়েছে মাত্র। এর বেশি আর কিছু নয়। তার অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে সর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগেছে। এ ব্যাপারে ভোলাব পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সেলিম মিয়া বলেন, এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মোকারম থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। পুলিশ তদন্ত পূর্বক আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।