ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার

হকিংকে অসম্মান ফুটবলারের! কারাদণ্ডের দাবি

| ১৭ মার্চ ২০১৮, শনিবার, ১১:১৪

হুইল চেয়ারে অশক্ত হয়ে থাকা হকিংয়ের বিশ্বজয়ের কাহিনি বিস্মিত করেছে সকলকে। পাশাপাশি তাঁকে কেন্দ্র করে ছড়িয়েছে গুজবও। তৈরি হয়েছে রহস্য। মহাকাশের হুইলচেয়ারে হারিয়ে গিয়েছেন বিখ্যাত বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং। ‘আ ব্রিফ হিস্ট্রি অফ টাইম’-এর স্রষ্টার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা বিশ্ব। নেটদুনিয়াতেও তাঁকে নিয়ে উত্তাল। কিন্তু নেইমার দ্য জুনিয়ার যা করলেন, তা একেবারেই অপ্রত্যাশিত। কাণ্ডজ্ঞানহীন পোস্ট করে প্রত্যেককে চমকে দিলেন তিনি।

কিছু ব্যক্তির রসবোধ যে একদমই কম হয়, তা আবার সম্ভবত প্রমাণ করে দিলেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইনের ব্রাজিলীয় তারকা। বিশ্বের অন্যতম দামি ফুটবলার তিনি। তিনিই কিনা এবার বেরসিক প্রতিপন্ন হলেন। কী পোস্ট করেছেন ব্রাজিলের ‘ওয়ান্ডার কিড’? সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। সেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি হুইলচেয়ারে বসে রয়েছেন নেইমার। মুখে হাসি।বসার ভঙ্গিতেই স্পষ্ট তিনি স্টিফেন হকিংকে নকল করেছেন। আবার সেই ছবির ক্যাপশনেই নেইমার উল্লেখ করেছেন হকিংয়েরই বিখ্যাত উক্তি, ‘‘জীবনের যে কোনও পরিস্থিতিতে আত্মবিশ্বাসী থাকতে হবে। তবেই নিজেকে যেখানে দেখতে চাও, সেখানে পৌঁছে যেতে পারবে।’’ প্রশ্ন উঠছে, হকিংয়ের প্রতিবন্ধকতা নিয়ে মশকরা করতেই কি চেয়েছেন নেইমার? নেটিজেনদের ব্যারাকিংয়ের সামনে পড়েন ব্রাজিলিয়ান তারকা। একজন লেখেন, ‘‘নেইমার! কোন নৈতিকতা বা সহানুভূতি নেই তোমার৷ সমস্ত টাকা বাজেয়াপ্ত করে কমপক্ষে দশ বছরের জন্য জেলে যাওয়া উচিত নেইমারের।’’ বেশিরভাগই লিখেছেন, ‘‘সহানুভূতিশীল, ভদ্র আচরণের নামগন্ধ নেই নেইমারের মধ্যে।’’ঘটনা হল, খুব অল্প বয়সেই বিরল ‘মোটর নিউরন’ রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন বিশ্ববন্দিত বিজ্ঞানী। স্বাভাবিক চলা-ফেরা করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন তারপরেই। যন্ত্রের দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত হত তাঁর বেঁচে থাকার প্রতিটি পল-অনুপল। এত প্রতিবন্ধকতাকে অগ্রাহ্য করেই বিজ্ঞান জগতে যুগান্তকারী উদ্ভাবন চালিয়ে গিয়েছেন আমৃত্যু।

বর্তমানে পায়ের চোটের কারণে মাঠের বাইরে রয়েছেন তিনি। এমন অবস্থাতেই অনভিপ্রেত সমস্যায় জড়িয়ে পড়লেন তারকা ফুটবলার। প্রশ্ন উঠছে, অর্থ, যশ, প্রতিপত্তিতেই কি মাথা বিগড়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ফুটবলারের?

সূত্রঃ এবেলা

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।


rubina

১৭ মার্চ ২০১৮, শনিবার, ৯:৪৫

olpo bidda voyonkori. jutare koi almari. Neimar has money but no knowledge.