× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, শনিবার

দেশে ফেরো, নইলে চুক্তি বাতিল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৯:২০

ফের ঝামেলা পাকালেন আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ শাহজাদ। বর্তমানে পাকিস্তানের পেশোয়ারে বসবাস করছেন তিনি। তবে বোর্ডের অনুমতি ছাড়া পাকিস্তানের এক ঘরোয়া টুর্নামেন্টে খেলতে গিয়ে জরিমানার মুখে পড়লেন এ আফগান উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। এ কারণে ৪০০০ ডলার জরিমানা গুণতে হচ্ছে তাকে। এরই সঙ্গে তাকে পাকাপাকিভাবে দেশে থাকার নির্দেশ দেয় আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। আর আফগানিস্তানে স্থায়ীভাবে বসবাস না করলে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়ার ঝুঁকিতে পড়বেন তিনি। গত সপ্তাহে এসিবি তাদের নতুন নীতি ঘোষণা করে। এসিবি চেয়ারম্যান আতিফ মাশাল হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, বোর্ডের অনুমতি ছাড়া কোনো খেলোয়াড় বিদেশে যেতে পারবে না।
যারা দেশের বাইরে থাকে তাদের এক মাসের মধ্যে পরিবার নিয়ে আফগানিস্তানে এসে বসবাস করার নোটিশ দেয়া হয়েছে। তা না হলে ক্রিকেট বোর্ড তাদের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করবে। ৩০ বছর বয়সী শাহজাদ এসিবির কোড অব কন্ডাক্ট ভেঙেছেন পেশোয়ারের স্থানীয় টুর্নামেন্টে অনুমতি ছাড়া খেলে। এসিবি চেয়ারম্যান তার বিষয়ে বলেন, কোনো অনুমতি ছাড়া সে ক্লাব পর্যায়ের টুর্নামেন্টে খেলেছে। এটা এসিবির কোড অব কন্ডাক্টের পরিপন্থি। শাহজাদ ২০১৭’র পুরো বছরই নিষেধাজ্ঞায় কাটিয়েছেন। ডোপ টেস্টে ধরা পড়ায় তাকে এ শাস্তি দেয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা (আইসিসি)। এরপর তিনি ফেরেন চলতি বছরের ১৭ই জানুয়ারি। জিম্বাবুয়েতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে খেলেন এবং ফাইনালে ম্যাচসেরার পুরস্কারও জেতেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে অনেক ক্রিকেটারই থাকেন না তাদের নিজ দেশে। পেশোয়ার আফগানিস্তানের বর্ডারের কাছাকাছি পাকিস্তানের একটি শহর। অনেক আফগান ক্রিকেটার এখানে শরণার্থী শিবিরে থেকে খেলা শিখেছেন। অনেকে এখানেই বিয়ে করে সংসারও পেতেছেন। শাহজাদও পেশোয়ারের এক নারীকে বিয়ে করেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর