ঢাকা, ১৭ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার
গাজীপুর সিটি নির্বাচন

৯ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৯:৩৩

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র, সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল সকাল থেকে প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের ভিড় ছিল রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে। নগরের জয়দেবপুরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে সিটি করপোরেশন নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মণ্ডলের নেতৃত্বে মেয়র, সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের উপস্থিতিতে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের কাজ শুরু করেন। দুপুরে যাচাই বাছাই শেষে সাত জন মেয়র প্রার্থীর প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। দু’জনের মনোনয়নপত্র স্থগিত করলেও পরে তাদের কাগজপত্র আরো যাচাই বাছাই করে বিকালে তাদের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়। দুপুরে মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে যে সাত জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেন তারা হলেন- আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম, বিএনপির হাসান উদ্দিন সরকার, জাসদের রাশেদুল হাসান রানা, ইসলামী আন্দোলনের নাসির উদ্দিন, ইসলামী ফ্রন্টের জালাল উদ্দিন, জামায়াত নেতা স্বতন্ত্র সানাউল্লাহ ও স্বতন্ত্র ফরিদ আহম্মেদ। বিকালে কাগজপত্র আরো যাচাই-বাছাই করে মেয়র প্রার্থী ইসলামী ঐক্যজোটের ফজলুর রহমান ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র রুহুল আমিনের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী আফসার উদ্দিনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। এ নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ১০ জন, সাধারণ কাউন্সিলর ২৯৪ জন ও ৮৭ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বৈধতার পর আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাসদসহ মেয়র প্রার্থীগণ নির্বাচনে আচরণবিধি মেনে চলার দৃঢ় প্রত্যয় এবং জেতার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ সময় রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মণ্ডল প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সবার সহযোগিতা চাই। দু’দিনব্যাপী মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাইয়ের কাজ চলবে আজ বিকাল পর্যন্ত। গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৩শে এপ্রিল। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ই মে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।