ঢাকা, ২৫ এপ্রিল ২০১৮, বুধবার

তুলে নেয়ার অভিযোগ, পরে মুক্ত, ডিবি বলছে আটক নয় তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ২:১৭

কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে সাদা পোশাকের পুলিশ তুলে নেয়ার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন দুপুরে জানিয়েছিলেন, সংগঠনটির তিন যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক, রাশেদ খান এবং নূরুল হক নূরকে সাদা পোশাকের পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে থেকে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পৌনে ৩টার দিকে ফারুক জানিয়েছেন, তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির নেতারা দুই দিনের মধ্যে ছাত্রদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের আলটিমেটাম দেন। অন্যথায় ফের আন্দোলনে নামারও হুশিয়ারি দেন তারা।
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন বলেন, তাদের কিছু তথ্য সহযোগিতার জন্য আনা হয়েছিলো। ভাঙচুরকারীদের সম্পর্কে কোন তথ্য আছে কি-না তাদের কাছে তা জানতে চাওয়া হয়েছিলো। কথা বলে তারা চলে গেছেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।


SHAHED

১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ২:৩২

একটা যৌক্তিক আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী নেতাদের এভাবে তুলে নেয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।এবং একই সাথে তাদের অনতিবিলম্বে ফিরিয়ে দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি। #Abductors! Shame on you.

Arfina Azizunnaher

১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৩:৫৫

kota sangskar andolon menei sadharon chatroder odhikerer andolon. boishommer biruddhe andolon. Jatir Jonok BangoBandhu Shekh Mujibur Rahmaner sara jiboner andolon-i chilo shoshon-bonchona ar boishommer biruddhe andolon. Amader muktijuddhara juddho korerechen shoshon-bonchona ar boishommer biruddhe. Sei songrami muktijuddhader namei ekhon abar boishommer srishti kora hoeche, srishti kora hoche. onekta jeno jara sreni-boishommohin somajer jonno jibon dilo, tarai jeno ekti sreni hoe daralo.

কথক

১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৫:১৭

ধিক্ তাদের যারা গণতন্ত্রের কথা বলে মুখে ফেনা তুলে কিন্তু আসলে স্বৈরচারের চেতনায় বিশ্বাস করে। তাকে দূত বানায় পতাকা দেয়। শহীদ নূর হোসেন, সেলিম, দেলোয়ার, তাজুল, ডা: মিলন কি জানতো তাদের রক্তের সাথে এমন বেঈমানী হবে।

Zahangir

১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৬:২১

I afraid our police, i haite also our police and AL.

Md. Fazlul hoque

১৬ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৮:৪৬

Police can not do any operation without administrative order or government political deccession specially this type of operation.