ঢাকা, ২০ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার

‘ব্যাংকিং খাতকে এতিমে পরিণত করা হয়েছে’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার, ১২:৩৮

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)’র বিশেষ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন, ২০১৭ সাল ছিল ব্যাংকিং খাতের কেলেঙ্কারির বছর। আর চলতি বছর ব্যাংকিং খাতকে এতিমে পরিণত করা হয়েছে। আর সে এতিমের ওপর হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। ব্যাংকিং খাতের টাকা নিয়ে ফেরত দেয়া হচ্ছে না। পুঁজিবাজারের অবস্থা অস্থিতিশীল। আমদানি খাতেও স্বচ্ছতার অভাব। এ তিনটি জায়গায় অর্থের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সংগঠনটির ‘বাজেট সুপারিশ’ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় ড. দেবপ্রিয় আরো বলেন, পড়াশোনা করে যে গাড়ি ঘোড়া চড়ে সে কিন্তু বর্তমান অবস্থান দাঁড়িয়েছে যে পড়াশোনা করে যে বেকার থাকে তত সে। শহরের চেয়ে গ্রামের মানুষের আয় কমেছে। পুরুষদের তুলনায় মেয়েদের আয় কমেছে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে। আয়হীন প্রবৃদ্ধি বেড়েছে।

[এফএম]

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।


kazi

১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার, ৩:০৯

এতিম নয় ভিখারি করা হয়েছে। ব্যাংকগুলি বেশী সুদে আমানত চাচ্ছে জনগণের কাছে হাত পাতছে।

Didar

১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার, ৩:৪৩

এ আর কিছু না পাপার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করিতেছে । হা হা হা ।

রুহুল আমিন যাক্কার

১৭ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার, ১০:০১

কী যে বলেন! উন্নয়নের জোয়ার বহাতে হলে ট্যাহা খরচ হইবো না? ব্যাংকগুলোতে খামক্কা মানি ফালাইয়া রাখারতো কোন মানে নাই। এই মাইনে দিয়াইতো আমরা উন্নয়নশীলতা খরিদ কইরা আনছি।