ঢাকা, ২৪ মে ২০১৮, বৃহস্পতিবার

নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৬ মে ২০১৮, বুধবার, ১০:৩৬

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিনি বলেন, বিএনপি প্রার্থী এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের মাধ্যমে ঢাকায় বসে নির্বাচনে ইনজিনিয়ারিং ক্যু এর ব্যাপারে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে যেমন নির্বাচন হয়েছিল খুলনায় তেমনই হচ্ছে। আপনারা সাংবাদিকদের কাছে খোঁজ নিয়ে দেখেন, সেখানে তেমন কোনো অভিযোগ নেই। সাংবাদিকরা তো আর সবাই আওয়ামী লীগ করেন না। বিএনপির মঞ্জুই শুধু অভিযোগ করছেন। আর ঢাকায় বসে তাদের নেতারা করছেন সংবাদ সম্মেলন।

গতকাল দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যানজট পরিস্থিতি পরিদর্শনে এসে এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চেয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সংবাদ সম্মেলনের ব্যাপারে তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার ব্যাপারে আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তাকে জিজ্ঞাসা করেছি যে বিএনপি যেভাবে বলছে তার অবস্থা সে রকম কি না। তিনি আমাকে বলেছেন, তার বয়স হয়েছে। তিনি যে পুরোপুরি সুস্থ তা বলা যাবে না। তবে কারাবিধি মতো তার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তারপরও খতিয়ে দেখছি আমরা। তার চিকিৎসায় যে ব্যবস্থা নেয়া দরকার তা নেয়া হচ্ছে।

মন্ত্রী গত কয়েক দিন ধরে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের তীব্র যানজটের কারণে জনসাধারণের ভোগান্তির ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, গতকাল মঙ্গলবার মহিপাল এলাকার একটি লেন খুলে  দেয়া হবে। তিনি জানান, আগামী ঈদের আগে ফেনী রেল সড়কের ওপর নির্মিত ওভার ব্রিজে এবং সড়কে দুটি করে লেন চালু করা হবে। এর ফলে ঈদের সময়ে যাত্রী সাধারণকে যানজটের ভোগান্তিতে পড়তে হবে না। মন্ত্রী মহাসড়কে পুলিশের চাঁদাবাজির অভিযোগের বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজিকে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী বলেন, এখানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চার লেন করার পরও মাঝে মধ্যে ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হচ্ছে এটা অস্বীকার করার কোনো কারণ নেই। তবে আমরা বসে নেই। এখানে রাস্তার কোনো সমস্যা নেই। রাস্তা চার লেন হয়ে গেছে।

এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি আতিকউল্লাহ, নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আলীউল হোসেন, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. শাহরিয়ার আলম ও আব্দুস সাত্তার এবং উপ-সহকারী প্রকৌশলী মতিয়ার রহমানসহ পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।


Abdun NOOR

১৬ মে ২০১৮, বুধবার, ৩:০৮

ঠাকুর ঘরে কে রে ? আমি কলা খাই না ......

Md. Fazlul hoque

১৫ মে ২০১৮, মঙ্গলবার, ১০:২০

রাস্তা দুই লেন অথবা চার লেন এই ব্যাপারটির পরিষ্কার ব্যাখ্যা থাকার দরকার এবং জনসাধারণকে ও বুঝতে হবে। যদি এক পাশে parallaly দুই সারি গাড়ী চলতে পারে তবে সেটা কি চার লেন? এবং সে ক্ষেত্রে কোন ধরনের যানবাহন কোন গতিতে কোন সারি তে অবস্থান করবে এটি যদি ensure করা না যায় তবে যানজট কমানো যাবে না।