ঢাকা, ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার

পাউরুটি আর না...

অনলাইন ডেস্ক | ১৯ মে ২০১৮, শনিবার, ৮:৩৪

ব্রেকফাস্টে বেশিরভাগ মানুষেরই পছন্দের তালিকায় রয়েছে পাউরুটি। খুব পছন্দ না হলেও চটজলদি ব্রেকফাস্টের জন্য পাউরুটির উপরেই ভরসা করেন অনেকে। কিন্তু জানেন কি এই খাবারটি অতিরিক্ত পরিমাণে খেলে শরীরে বেশ কিছু মারণ রোগ শরীরে বাসা বাঁধতে শুরু করে।
বেশ কয়েকটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ‘সিলিয়াক ডিজিজ’ বা ‘অটোইমিউন ডিজিজ’-এ আক্রান্তের সংখ্যাটা ক্রমশ বাড়ছে। এই অসুখে শরীরের সুস্থ কোষগুলি ক্রমশ নষ্ট বা ক্ষতিগ্রস্থ হতে শুরু করে। এই রোগ শনাক্ত করাও বেশ শক্ত। কারণ, এই রোগের নির্দিষ্ট কোনও উপসর্গ নেই। এ বার জেনে নেওয়া যাক অতিরিক্ত পরিমাণে পাউরুটি খেলে কী কী সমস্যা হতে পারে...

শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি পায়:
গবেষণায় দেখা গিয়েছে, নিয়মিত পাউরুটি বা ময়দা দিয়ে তৈরি কোনও খাবার খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা অনেকটাই বৃদ্ধি পায়। আর কোলেস্টরল বাড়লে ঝুঁকি বাড়বে হার্টের নানা সমস্যার। হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যাবে অনেকটাই।
ওজন বৃদ্ধি পায়:
গবেষণায় দেখা গিয়েছে, পাউরুটি খাওয়ার পর শরীরে একদিকে যেমন শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি পায়, তেমনি কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণও বাড়তে শুরু করে। ফলে ওজন বাড়তে শুরু করে। বেড়ে যায় উচ্চ রক্তচাপের সমস্যাও।

ডায়াবেটিস-এ আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে:
একাধিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে পাউরুটি হজম হতে অনেকটাই সময় নেয়। আর হজম হওয়া মানেই রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়তে শুরু করে। ফলে ইনসুলিনের ক্ষরণও বেড়ে যায়। এমনটা দিনের পর দিন হতে থাকলে টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা মারাত্মক বৃদ্ধি পায়। সেই কারণেই তো যাদের পরিবারে এই মারণ রোগটির ইতিহাস রয়েছে, তাদের পাঁউরুটি থেকে শত হস্ত দূরে থাকার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকেরা।

মানসিক অবসাদে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়:
‘আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিকাল নিউট্রিশন’-এ প্রকাশিত রিপোর্ট বলছে, পাঁউরুটি খাওয়া মাত্র শরীরে এমন কিছু পরিবর্তন হয় যার প্রভাবে বিশেষ কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায় যা মানসিক অবসাদ এবং ডিপ্রেশনের মতো সমস্যাকে বাড়িয়ে দেয়।
সুত্র: জি নিউজ

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।