× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার

রোনালদোর চেয়ে মেসিই এগিয়ে- জোয়াকিম লো

ফিফা বিশ্বকাপ-২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক | ২৭ মে ২০১৮, রবিবার, ৭:৫৪

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর চেয়ে লিওনেল মেসিকেই এগিয়ে রাখলেন জার্মান কোচ জোয়াকিম লো। গতকাল এক সাক্ষাৎকারে আর্জেন্টিনা ও পর্তুগালের দুই অধিনায়ক লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো প্রসঙ্গে জার্মানির এই কোচ বলেন, আমি মেসিকেই এগিয়ে রাখবো। রোনালদো অসাধারণ ফুটবলার। অনেক বছর ধরে সে অহরহ গোল করে যাচ্ছে। তার গোল করার অসাধারণ দক্ষতা রয়েছে। কিন্তু মেসি হলো আমার দেখা পরিপূর্ণ একজন ফুটবলার। মেসি একটা দলের গ্রেট খেলোয়াড়। যে কিনা টানা ১০ বছর ধরেই প্রত্যেক মৌসুমে সতীর্থদের দিয়ে ৩০-৪০ গোল করাচ্ছে।
প্রতি মৌসুমে প্রায় ৫০ গোল পাচ্ছে মেসি। সে এমন একজন ফুটবলার যে অনায়াসেই ৮ থেকে ৯ জন খেলোয়াড়কে পাশ কাটিয়ে এমন এক গোল করবে, যা আপনার সারাজীবন মনে থাকবে। ২০১৪’র ব্রাজিল বিশ্বকাপে খুব কাছ থেকেই লিওনেল মেসিকে দেখেছেন জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো। গত আসরে প্রায় একক নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গেছেন বিশ্বকাপের ফাইনালে। এরই সুবাদে জিতেছেন আসরের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। এ ছাড়া গত ১০ বছর ধরেই ফুটবল বিশ্বে রাজত্ব করে যাচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসি। এর মধ্যে বর্ষসেরা পুরস্কারের (ব্যালন ডি’অর) সবক’টিই জেতেন এ দু’জন। নিজ নিজ ক্লাবের ইতিহাসেও সর্বোচ্চ গোলদাতা তারা। ২০১৬তে পর্তুগালকে ইউরোর শিরোপা জেতান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। অন্যদিকে গত বিশ্বকাপের পর আর্জেন্টিনাকে দুই বার কোপা আমেরিকার ফাইনালে তুলেছেন মেসি। যদিও দুই বারই খালি হাতে ফিরতে হয়েছে এ আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে। ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে জোয়াকিম লোর জার্মানির কাছেই ১-০ গোলে হেরে শিরোপা জেতা হয়নি মেসির। এরপর চিলির বিপক্ষে কোপা আমেরিকার ফাইনালে দু’বারই হারতে হয়েছিল আর্জেন্টিনাকে। এবারের আসরে গ্রুপ ‘ডি’তে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ প্রথমবারে মতো বিশ্বকাপে খেলতে আসা আইসল্যান্ড, নাইজেরিয়া ও ক্রোয়েশিয়া। এদিকে রোনালদোর পর্তুগাল খেলবে ২০১০ আসরের চ্যাম্পিয়ন স্পেন, মরোক্কো এবং ইরানের বিপক্ষে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর