ঢাকা, ১৯ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার

মেসিকে ম্যারাডোনার উপদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক | ২ জুন ২০১৮, শনিবার, ১০:১৫

বিশ্বকাপ সামনে রেখে উত্তরসূরি লিওনেল মেসিকে অনুপ্রাণিত করেছেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। দিয়েছেন কিছু উপদেশ। বিশ্বকাপ জিততে চাপ না নিয়ে মেসিকে খেলাটা উপভোগ করতে তাগিদ দেন ৮৬’র বিশ্বকাপ নায়ক। ম্যারাডোনা বলেন, ‘আমি মেসিকে খেলা উপভোগ করার উপদেশ দেব। তাকে খেলা চালিয়ে যেতে বলবো। যদি সে বিশ্বকাপ জেতে কিংবা না-ও জেতে তাকে সমালোচনা ভুলে থাকতে হবে।’ আর্জেন্টিনার জার্সিতে চারটি ফাইনাল (তিনটি কোপা আমেরিকা) খেলেও শিরোপার দেখা পাননি মেসি। গত বিশ্বকাপের ফাইনালে শিরোপার এতো কাছে গিয়েও স্বপ্নভঙ্গ হয়। অতিরিক্ত সময়ের গোলে চ্যাম্পিয়নের আসনে বসে জার্মানি। রাশিয়ায় এবার সেই আক্ষেপ ঘোঁচানোর চ্যালেঞ্জ। ত্রিশ বছর বয়সী মেসির বিশ্বকাপ জয়ের এটাই হয়তো শেষ সুযোগ। মেসি নিজেও তার প্রজন্মের জন্য এটিকেই শেষ সুযোগ হিসেবে দেখছেন। ম্যারাডোনার দাবি, আর্জেন্টিনার জার্সিতে মেসির প্রমাণের কিছু নেই। তিনি বলেন, ‘মেসির আর্জেন্টিনার হয়ে কোনো কিছু আর প্রমাণ করতে হবে না। মাঠে তার খেলাটা উপভোগ করা উচিত।’ ১৯৮৬ সালে অনেকটা একক নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ এনে দেন ম্যারাডোনা। তার নেতৃত্বে পরের আসরেও ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা। দুইবারই প্রতিপক্ষ ছিল তৎকালীন পশ্চিম জার্মানি। এবার ৩২ বছরের খরা কাটাতে পারবে আকাশী-নীল জার্সিধারীরা? ম্যারাডোনা ইতিবাচক দৃষ্টি থেকেই আর্জেন্টিনাকে ফেভারিট ভাবছেন না, ‘আমি মনে করি আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের ভালো সুযোগ রয়েছে। কিন্তু আমি তাদেরকে ফেভারিট হিসেবে বেছে নিতে পারবো না। কারণ ফেভারিট দল কখনো শিরোপা জেতে না।’ বরাবরই আর্জেন্টিনার বর্তমান কোচ হোর্হে সাম্পাওলির সমালোচনা করে আসছেন ৫৭ বছর বয়সী ম্যারডোনা। আবারো খোঁচা দিয়েছেন। তবে প্রশংসা করেন খেলোয়াড়দের। এই দলটির অনেকেই যে ম্যারাডোনার শিষ্য ছিলেন। ২০০৮ থেকে ২০১০ পর্যন্ত আর্জেন্টিনার কোচের দায়িত্বে থাকার সময় মেসি-ডি মারিয়াদের খুব কাছ থেকেই দেখেন ম্যারাডোনা। কোচ ও খেলোয়াড়দের নিয়ে ম্যারডোনার ভাষ্য, ‘আমি সাম্পাওলিকে চিনি না। সে কিভাবে কোচিং করায় তা আমার জানা নেই। কিন্তু এই দলটার অনেক খেলোয়াড়কে খুব ভালো করে চিনি। আমি জানি তারা নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেবে।’ বিশ্বকাপ সামনে রেখে এখন বার্সেলোনার অনুশীলন মাঠে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছে আর্জেন্টিনা দল। এই ট্রেনিং ক্যাম্প চলবে ৮ই জুন পর্যন্ত। পরদিন ইসরাইলে গিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলে রাশিয়ার বিমান ধরবে গতবারের রানার্সআপরা। স্পেনে আসার আগে আর্জেন্টিনায় প্রথম প্রস্তুতি সারেন লিওনেল মেসিরা। বুয়েন্স আয়ার্সে হাইতির বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে মেসির হ্যাটট্রিকে ৪-০ গোলের উড়ন্ত জয় পায় সাম্পাওলির শিষ্যরা। আগামী ১৬ই জুন আইসল্যান্ড ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করবে আর্জেন্টিনা। ‘ডি’ গ্রুপের বাকি দুই প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।