× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

ঈদের পরদিন বর্ণাঢ্য ‘ইত্যাদি’

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:১৬

প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদ আনন্দের সঙ্গে দর্শকদের জন্য বাড়তি আনন্দ নিয়ে আসছে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’। এবার ঈদের ‘ইত্যাদি’ ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহ্‌রাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। বরাবরের মতো এবারও ‘ইত্যাদি’ শুরু করা হয়েছে ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ’ গানটি দিয়ে। নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতায় এবারের গানটি পরিবেশন করবেন কয়েক হাজার শ্রমজীবী মানুষ ও ইনডোর স্টেডিয়ামে আগত কয়েক হাজার দর্শক। এবারের ঈদ ইত্যাদিতে একটি বিষয়ভিত্তিক গান গেয়েছেন নন্দিত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন ও এ্যান্ড্রু কিশোর। সামপ্রতিক সময়ে দেশে উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়া সড়ক দুর্ঘটনা ও আমাদের সচেতনতা নিয়ে গানটির কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সংগীতায়োজন করেছেন ফরিদ আহমেদ। গানটির চিত্রায়ণে সাবিনা ইয়াসমিন ও এ্যান্ড্রু কিশোরের সঙ্গে অংশ নিয়েছেন শতাধিক নৃত্যশিল্পী। বরাবরের মতো ইত্যাদির এবারের নাচটিতেও রয়েছে ব্যাপক আয়োজন এবং সমসাময়িক বিষয়। নাচটি পরিবেশন করবেন দেশের খ্যাতিমান নৃত্যজুটি শিবলী মোহাম্মদ ও শামীম আরা নিপা। তাদের সঙ্গে থাকছেন প্রায় শতাধিক নৃত্য ও অভিনয় শিল্পী। এবারের ঈদ ইত্যাদিতে ছন্দে-সুরে ব্যতিক্রমী একটি আলোচনায় অংশ নিয়েছেন অভিনয় তারকা শহীদুজ্জামান সেলিম, মীর সাব্বির, সাজু খাদেম ও শাহরিয়ার নাজিম জয়। ঈদ ইত্যাদির নানান চমকের একটি হচ্ছে এই প্রজন্মের অত্যন্ত জনপ্রিয় ৪ তারকাকে নিয়ে একটি বিষয়ভিত্তিক বিশেষ গান। আর নাচে-গানে এই পর্বটিতে অভিনয় করেছেন ফেরদৌস, অপূর্ব, মম ও দীর্ঘদিন পর আমেরিকা প্রবাসী মোনালিসা। তাদের সঙ্গে নৃত্যে অংশ নিয়েছেন অর্ধশতাধিক নৃত্যশিল্পী। এবারের মিউজিক্যাল ড্রামায় অভিনয় করেছেন অভিনয় তারকা ইমন ও কুসুম শিকদার এবং অন্যটিতে অভিনয় করেছেন এই প্রজন্মের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী প্রতিক হাসান ও কনা। সংগীত পরিচালনা করেছেন নাভেদ পারভেজ। বরাবরের মতো বিদেশিদের নিয়ে এবারও রয়েছে একটি ব্যতিক্রমী আয়োজন। এই পর্বটিতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের প্রায় অর্ধ শতাধিক বিদেশি নাগরিক অংশগ্রহণ করেছেন। এবারের বিষয় ‘পারিবারিক শান্তি’। জন্ম, মৃত্যু, বিয়ে সবজায়গাতেই টাকার খেলা। এই বিষয় নিয়েই পরিবেশিত হয়েছে এবারের দলীয় সংগীত। আর এতে অংশগ্রহণ করেছেন ইত্যাদির নিয়মিত নৃত্যশিল্পীরা। নৃত্য পরিচালনা করেছেন মামুন। সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদী। এবারের দর্শক পর্বে তাৎক্ষণিকভাবে তৈরি কিছু টুকরো নাট্যাংশে পরবর্তী পর্বে চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে অভিনয় করেছেন নির্বাচিত দর্শকরা। রয়েছে আজিজুল হাকিম ও রোজী সিদ্দিকীর মজাদার দাম্পত্য কলহ পর্ব। মামার মানা সত্ত্বেও এবারের ঈদেও মৌসুমী ব্যবসায়ী ভাগ্নে নতুন ব্যবসার পরিকল্পনা করেছে। আর ওদিকে নানি-নাতিকে দেখা যাবে স্টুডিওতে দর্শকদের সামনে। তবে এবারে তাদের সঙ্গে থাকছে একদল চৌকষ ব্যান্ড বাদক। এছাড়া ঈদকে ঘিরে ডজনখানেক বিদ্রূপাত্মক রসালো নাট্যাংশ রয়েছে এবারের পর্বে। প্রচারে প্রসার না অসাড়, ভিক্ষুকের ভিক্ষায় নতুনত্ব, হুঁশ হয়ে ঘুষ নেওয়া, যানজট=জান জট, হকার যখন টকার, তকদিরের তদবির, অর্থ না বোঝায় অনর্থ কাণ্ডসহ বিভিন্ন বিষয়ে আরো কয়েকটি নাট্যাংশ রয়েছে। ঈদ ইত্যাদির উল্লেখযোগ্য শিল্পীরা হলেন-সোলায়মান খোকা, তবিবুল ইসলাম বাবু, জিয়াউল হাসান কিসলু, সুভাশিষ ভৌমিক, ডা. এজাজুল ইসলাম, আবদুল কাদের, আফজাল শরীফ, শবনম পারভীন, কামাল বায়েজিদ, আমিন আজাদ, কাজী আসাদ, রতন খান, জিল্লুর রহমান, নিপু, বিলু বড়ুয়া, জামিল হোসেন, তারিক স্বপন, বিণয় ভদ্র, সাবরিনা নিসা, সাজ্জাদ সাজু, নজরুল ইসলাম, হাশিম মাসুদ, মতিউর রহমান, জাহিদ চৌধুরী, আজিজ, ফরিদ, মনজুর আলম ও আরো অনেকে। ইত্যাদির শিল্প নিদের্শনা করেছেন যথারীতি মুকিমূল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসেবে ছিলেন রানা সরকার ও মামুন মোহাম্মদ। ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন, স্পন্সর করেছে কেয়া কসমেটিকস্‌ লিমিটেড। ইত্যাদি একযোগে প্রচার হবে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে ঈদের পরদিন রাত ১০টা ২০ মিনিটে এবং পুনঃপ্রচার করা হবে ঈদের ৪র্থ দিন রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর