× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

কমলগঞ্জে স্বামীর পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষা করতে গিয়ে হয়রানির শিকার গৃহবধূ

বাংলারজমিন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ১২ জুন ২০১৮, মঙ্গলবার, ৯:৪৩

কমলগঞ্জে স্বামীর পৈত্রিক ভূসম্পত্তি রক্ষা করতে গিয়ে মাহমুদা আক্তার নামে এক গৃহবধূ নানাভাবে হয়রানি ও নির্যাতিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। কমলগঞ্জের বাল্লারপাড় গ্রামের মরহুম আবদুল মন্নানের স্ত্রী গৃহবধূ মাহমুদাকে মানুষিকভাবে নির্যাতনসহ নানাভাবে হয়রানি ও বসতঘর নির্মাণের জন্য ভিটারকম জমিতে লাগানো আকাশমণি গাছের চারা কেটে নষ্ট করে দিয়েছেন আবদুল হান্নান নামের স্থানীয় এক প্রভাবশালী। ওই প্রভাবশালী গৃহবধূর মাহমুদার স্বামীর পৈত্রিক জমি ভোগদখলে নানাভাবে হয়রানি করায় তিন সন্তান নিয়ে দুঃখ-কষ্টে জীবনযাপন করছেন গৃহবধূ মাহমুদা। জানা গেছে, বাল্লারপাড় গ্রামের মরহুম আবদুল সোবহানের ছেলে আবদুল মন্নানের পৈত্রিক ২৭ শতক জমি দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখল করে আসছেন। তিনি মারা যাবার পর স্ত্রী মাহমুদা তার ২ মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে জমি ভোগদখল করে আসছিলেন। সম্প্রতি ওই জমি দখলের পাঁয়তারা করেন তারই ভাই সাবেক ইউপি সদস্য প্রভাবশালী আবদুল হান্নান। স্বামীর পৈত্রিক ভূসম্পত্তি রক্ষা করতে গিয়ে মাহমুদা নানাভাবে নির্যাতিত হন। বসতঘর নির্মাণের জন্য ভরাট করা জমিতে রোপণ করা অর্ধশতাধিক আকাশমণি গাছ ৭ই জুন প্রতিপক্ষ আবদুল হান্নান কেটে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেন। এ নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিকট বিচারপ্রার্থী হওয়ায় বর্তমানে তিন সন্তান নিয়ে অনেকটা অবরুদ্ধ অবস্থায় তিনি দিনযাপন করছেন বলে গৃহবধূ মাহমুদা অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে তিনি প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।
এ বিষয়ে কথা বলতে আবদুল হান্নানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর