ঢাকা, ২৩ জুন ২০১৮, শনিবার

সিলেটে রবি ঠাকুরের আবক্ষ মূর্তি উন্মোচন করলেন মেয়র আরিফ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৪ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:৫০

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত সিলেট নগরীর মাছিমপুর মণিপুরীপাড়ায় নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে কবিগুরুর আবক্ষ মূর্তি উন্মোচন করা হয়েছে। সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গতকাল বিকালে আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করেন। এসময় মেয়র বলেন, সিলেট পীর আউলিয়া সাধক মহাপুরুষদের পাদস্পর্শে ধন্য। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা এই সিলেটে কবিগুরুর আগমণ ইতিহাসের অংশ। ইতিহাস সংরক্ষণে রবীন্দ্র স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ ও আবক্ষ প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়েছে। এটা পর্যটকদেরও আকর্ষণ করবে। মাছিমপুর মণিপুরীপাড়ার পঞ্চায়েত সভাপতি সত্যজিৎ সিংহ সত্যবানের সভাপতিত্বে ও ডা. সিধু সিংহের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. এন কে সিনহা, সিলেট নার্সিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ইলা সিনহা, ওয়ার্ড কাউন্সিলার মোস্তাক আহমদ, মহিলা কাউন্সিলর সালেহা কবির শেপী, বাংলাদেশ মণিপুরী ডক্টরস ফোরামের আহ্বায়ক ডা. পরেশ চন্দ্র সিংহ, মাছিমপুর গোপীনাথ জিউর মন্দির কমিটির সভাপতি অলক সিংহ, মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতি সিলেট জেলার সভাপতি নির্মল কুমার সিংহ, সহসভাপতি দীপাল কুমার সিংহ, সাধারণ সম্পাদক সংগ্রাম সিংহ, মণিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতির কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক সুনীল সিংহ, কার্যকরী সদস্য সুনীলা সিনহা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রণজিৎ কুমার সিংহ, মণিপুরী জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ সিলেট বিভাগীয় কমিটির প্রসন্ন কুমার সিংহ, যুবনেতা বিলাস সিংহ, মাছিমপুর মণিপুরী যুব সংঘর সভাপতি বিপ্লব সিংহ ও সাধারণ সম্পাদক সুমন সিংহ। ১৯১৯ সালে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সিলেট সফরকালে নগরীর মাছিমপুর মণিপুরীপাড়ায় যান। ওই সফরে তিনি মণিপুরীদের ঐতিহ্যবাহী রাস নৃত্য দেখে মুগ্ধ হন। এরই ধারাবাহিকতায় কবিগুরু শান্তিনিকেতনে মণিপুরী নৃত্যের প্রচলন ছাড়াও গোটা বিশ্বে মণিপুরী নৃত্য ছড়িয়ে দেন। কবিগুরুর সিলেট সফরের ঐতিহাসিকতা স্মরণীয় করে রাখতে মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির প্রাক্তন সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা পদ্মাসেন সিনহা মাছিমপুরে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের আবক্ষ মূর্তি স্থাপনের উদ্যোগ নেন। বিষয়টি গুরুত্ব বিবেচনায় বাংলাদেশের মণিপুরীদের ১৪ দফার তৃতীয় দফা দাবি হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে সরকারের সর্ব্বোচ্চ মহল, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে কয়েক দফা স্মারকলিপি দেয় মণিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতি সিলেট জেলা শাখা। আরিফুল হক চৌধুরী সিলেটের মেয়র নির্বাচিত হলে তার সঙ্গেও কয়েক দফা বৈঠক হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র রবীন্দ্রস্মৃতি বিজড়িত মাছিমপুর পরিদর্শনে গেলে স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণের ঘোষণা দেন। নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলে গতকাল তিনি স্মৃতিস্তম্ভ ও আবক্ষমূর্তি উন্মোচন করেন। এসময় পঞ্চায়েত সভাপতি সত্যজিৎ সিংহ সত্যবানকে আহ্বায়ক করে ‘মাছিমপুর মণিপুরীপাড়া রবীন্দ্র স্মৃতিস্তম্ভ ও আবক্ষমূর্তি সংরক্ষণ কমিটি’ ঘোষণা করেন মেয়র।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।