× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার

দিনাজপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, ক্লিনিক ভাংচুর

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার,দিনাজপুর থেকে | ১৪ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১১:৪২

দিনাজপুর শহরের বালুবাড়ী জোড়া ব্রীজ সংলগ্ন আল-মদীনা ক্লিনিকে সিজার করতে গিয়ে ভুল চিকিৎসায় এক  প্রসুতির মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রোগির আত্মীয়-স্বজন ও উত্তেজিত জনতা ক্লিনিকে হামলা চালিয়েছে। পরে স্থানীয় প্রশাসন পুলিশ মোতায়েনের মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনলেও ক্লিনিকের ডাক্তার ও কর্মচারীরা ক্লিনিকে ছেড়ে পালিয়েছে। প্রসূতির মৃত্যুর জন্য রোগির লোকজন সিজারিয়ার ডাঃ খাদিজা নাহিদ ইভাকে দায়ী করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার সকালে।  
রোগীর ভাগিনা মোঃ মামুন সাংবাদিকদের জানায়,দিনাজপুরের  চিরিরবন্দর উপজেলার ৮নং সাইতাঁড়া ইউনিয়নের মোঃ ইয়াকুব আলীর স্ত্রী ৩  মেয়ে সন্তানের জননী  মোছাঃ হোসনে আরাকে শহরের বালুবাড়ী জোড়াব্রীজ সংলগ্ন আল-মদিনা ক্লিনিকে মঙ্গলবার ভর্তি করা হয়। মাতৃ সদনের গাইনী বিভাগের প্রধান ডাঃ খাদিজা নাহিদ ইভা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে এবং বিকাল ৪ টায় সিজার করতে বলে। রোগীর লোকজনের মতামতের ভিত্তিতে বিকাল ৪টায় সিজার করেন ডাঃ ইভা।
ভুল চিকিৎসায় প্রচুর রক্তক্ষরণ হলেও সিজার করার মাধ্যমে হোসনে আরা একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেয়। কিন্তু কোন ভাবেই তার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়াতে সকালে মোছাঃ হোসনে আরা মারা যায়। অবস্থা বেগতিক দেখে রোগীর লোকজনকে না জানিয়ে তড়িঘড়ি করে এ্যাম্বুলেন্স ডেকে উন্নত চিকিৎসার অজুহাতে মৃত রোগী হোসনে আরা কে মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। সেখানে কর্মরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে এবং ডেট সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এদিকে রোগীর লোকজন সংবাদ পেয়ে বুধবার সকাল থেকে রোগীর লোকজন স্থানীয় লোকজনকে নিয়ে আল-মদিনা ক্লিনিকে হামলা চালায় এবং ঢিল পাটকেল নিক্ষেপ, চিল্লাচিল্লি শুরু করলে ক্লিনিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর