ঢাকা, ১৬ জুলাই ২০১৮, সোমবার

মামলার আসামি সেনেগালের জয়ের নায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক | ২১ জুন ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৯:৫৩

১৬ বছর আগে বিশ্বকাপে নিজেদের অভিষেক ম্যাচে শিরোপাধারী ফ্রান্সকে হারিয়ে চমক দেখিয়েছিল সেনেগাল। আর বিশ্বকাপে দ্বিতীয়বার খেলতে নেমে চমক ধরে রেখেছে সেনেগালিজরা। মঙ্গলবার তুখোড় স্ট্রাইকার রবার্ট লেভানদস্কির পোল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় দেখে সেনেগাল। আর ম্যাচে সেনেগালের জয়ের নায়ক সেই এমবায়ে নিয়াং। ম্যাচের ৬০তম মিনিটে সেনেগালের দ্বিতীয় গোল আদায় করেন তিনি। ২৩ বছর বয়সী স্ট্রাইকার এমবায়ে নিয়াংয়ের অতীতটা বিতর্কে ভরা। অনেক অপরাধের আসামি এই নিয়াং অতীতে বিভিন্ন কাজের জন্য সমালোচিত ও শাস্তি পেয়েছেন। ২০১২ সালে কিশোর নিয়াংকে পুলিশ আটক করে লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর দায়ে। তবে শেষ পর্যন্ত পুলিশ তাকে ছেড়ে দিয়েছিলো। ২০১৪ সালে আরো বড় দুর্ঘটনা ঘটিয়ে বসেন নিয়াং। তার ফেরারি গাড়ি নিয়ে ফ্রান্সের মঁপলিয়ের রাস্তায় অ্যাকসিডেন্ট করে বসেন এ সেনেগালিজ স্ট্রাইকার। তখনো নিয়াংয়ের ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল না। ওই ঘটনায় নিয়াংকে আঠারো মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। কিন্তু তখন সামাজিক কাজকর্ম করে জেলে যাওয়ার হাত থেকে বেঁচে যান তিনি। ২০১৬ সালে ফের সড়ক দুর্ঘটনা ঘটান নিয়াং। সেবার নিজের কাঁধে চোট পান এই সেনেগালিজ ফুটবলার। এখানেই বিতর্কের শেষ নয়। বাবা-মা সেনেগালিজ হলেও নিয়াংয়ের জন্ম ফ্রান্সে। বয়সভিত্তিক দলগুলোতে ফ্রান্সের হয়েই খেলে আসছিলেন নিয়াং। কিন্তু ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশম তাকে জাতীয় দলে না ডাকায় গত বছর সেনেগালের হয়ে খেলার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এজন্য সমালোচনার শিকার হতে হয় তাকে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।