ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার

‘ফ্রান্সকে হারাতে পারে মেসি একাই’

স্পোর্টস ডেস্ক | ৩০ জুন ২০১৮, শনিবার, ৯:৫২

রাশিয়া বিশ্বকাপে আগুনঝরা এক ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনা। দুই দলেই তারকার ছড়াছড়ি। লিওনেল মেসিকে নিয়ে উত্তরসূরিদের কড়া সতর্কতা জানিয়েছেন ফ্রান্সের ১৯৯৮ বিশ্বকাপ দলের সদস্য ভিজেন্তে লিজারাজু। মেসি একাই ফ্রান্সের জন্য বড় হুমকি হয়ে উঠতে পারেন বলে মনে করেন তিনি। কাজান অ্যারেনায় আজ রাত ৮টায় ফ্রান্স-আর্জেন্টিনা ম্যাচ দিয়ে নকআউট পর্বের পর্দা উঠবে। আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ‘টাইম স্পোর্টস’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে সাবেক তারকা ডিফেন্ডার লিজারাজু বলেন, ‘আর্জেন্টিনা দলে রয়েছে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। লিওনেল মেসি একাই ম্যাচ ঘুরিয়ে দেয়ার সামর্থ্য রাখে। ফ্রান্সের বিপক্ষেও যে মেসি জ্বলে উঠবেন না তা কেউ বলতে পারি না।’ মেসিকে আটকাতে বিশেষ পরিকল্পনার বিকল্প নেই বলে মনে করেন ফ্রান্সের জার্সিতে ৯৭ ম্যাচ খেলা লিজারাজু। সাবেক এই লেফটব্যাক বলেন, ‘একজন দিয়ে মেসিকে মার্কিং করা অসম্ভব। ওয়ান-টু-ওয়ানে সে খুবই শক্তিশালী। মেসির সঙ্গে অন্য ফরোয়ার্ডদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে। কারণ মেসি শুধু একজন স্ট্রাইকারই নন, একজন প্লে-মেকারও।’ অন্যদিকে ফ্রান্সের বর্তমান দলের ডিফেন্ডার প্রেসনেল কিমপেম্বে বলেন, ‘গ্রহের এমন কোনো খেলোয়াড় নেই যে মেসিকে থামাতে পারে। তাকে দলগতভাবেই আটকাতে হবে।’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করে ফ্রান্স। অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে শেষ ষোলোতে পা রাখে মেসির আর্জেন্টিনা। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে (২-১) বাঁচা-মরার শেষ ম্যাচে নিজেকে ফিরে পান মেসি। এভার বানেগার দূরপাল্লার পাস ধরে নজরকাড়া ফিনিশিংয়ে টুর্নামেন্টে প্রথম গোল পান আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। গ্রুপ পর্বে কঠিন সময় গেলেও নকআউট পর্বে আর্জেন্টিনা জ্বলে উঠবে বলে মনে করেন লিজারাজু। বোর্দো ও বায়ার্ন মিউনিখের এই সাবেক খেলোয়াড়ের ভাষ্যমতে, ‘আর্জেন্টিনা প্রথম রাউন্ডে খুব একটা ভালো করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ঠিকই দ্বিতীয় রাউন্ডে উত্তীর্ণ হয়। এখন তারা বেশ আত্মবিশ্বাসী। ম্যাচে তারা ছেড়ে কথা বলবে না। আমি মনে করি দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচটি দুই দলের জন্যই কঠিন এক পরীক্ষা হবে।’ গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ডেনমার্কের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে ফ্রান্স। এটি উদ্বিগ্ন করছে লিজারাজুকে। আরো উন্নতির তাগিদ দেন তিনি। বলেন, ‘ডেনমার্ক আমাদের রুখে দিয়েছে। এটা দেখা মোটেও সুখকর ছিল না। অবশ্যই আমাদের আরো উন্নতি করতে হবে।’

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।