× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

উরুগুয়ে বিরক্তিকর ফুটবল খেলবে: গ্রিজম্যান

ফিফা বিশ্বকাপ-২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক | ২ জুলাই ২০১৮, সোমবার, ১০:০৯

উরুগুয়ের খেলার ধরন প্রতিপক্ষের জন্য বিরক্তিকর হতে পারে বলে মনে করেন ফ্রেঞ্চ তারকা আন্তোইন গ্রিজম্যান। উরুগুয়ের কৌশল নিজ ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। তবে ফ্রান্স দল এর সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারবে বলে আশাবাদী গ্রিজম্যান। আগামী ৬ই জুলাই রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে ফ্রান্স। দ্বিতীয় রাউন্ডে রোনালদোর পর্তুগালকে ২-১ গোলে হারায় সুয়ারেজ-কাভানির উরুগুয়ে। তার আগে রোমাঞ্চকর ম্যাচে মেসির আর্জেন্টিনাকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে মাঠ ছাড়ে গ্রিজম্যানে ফ্রান্স। ডিফেন্সিভ কৌশলে এবারের আসরের সেরা উরুগুয়ে। গ্রুপ পর্বে উরুগুয়ে একমাত্র দল যারা একটি গোলও হজম করেনি।
ডিফেন্স ঠিক রেখে আক্রমণে তাদের বড় অস্ত্র লুইস সুয়ারেজ ও এডিনসন কাভানি। কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়ের কড়া ডিফেন্সই প্রত্যাশা করছেন গ্রিজম্যান। তার দুই ক্লাব সতীর্থ দিয়েগো গোদিন ও হোসে মারিয়া জিমেনেজ উরুগুয়ের রক্ষণভাগের কাণ্ডারি। গ্রিজম্যান বলেন, ‘উরুগুয়ের খেলা অ্যাটলেটিকোর মতো। তারা সময় নিয়ে খেলে। ম্যাচটা বিরক্তিকর হতে পারে এবং তারা সেটি আমাদের ওপর চাপিয়ে দিয়ে সুযোগ নিতে চাইবে। আমাদেরকে অবশ্যই এর সঙ্গে মানিতে নিতে হবে।’ জোড়া গোল করে পর্তুগালকে বিদায় করেন এডিনসন কাভানি। তবে পেশীতে টান নিয়ে মাঠ ছাড়েন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। কাভানির ভূয়সী প্রশংসাই করেন গ্রিজম্যান। বলেন, ‘আমার মতে কাভানি বিশ্বের সেরা ফরোয়ার্ড। সে দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। যদি সে ইনজুরিতে থাকে উরুগুয়ে দলেও অনেক পরিবর্তন দেখা যাবে।’ উরুগুয়ে যখন কাভানিকে নিয়ে চিন্তিত অন্যদিকে কাভানির ক্লাব সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপ্পেকে দিয়ে উরুগুয়ের রক্ষণ ভাঙার কৌশল সাজাচ্ছে ফ্রান্স। চার মিনিটে (৬৪ ও ৬৮) দুই গোল করে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের হৃদয় ভাঙেন পিএসজি স্ট্রাইকার এমবাপ্পে। এমবাপ্পেকে আটকাতে উরুগুয়ে পরিকল্পনা নিয়ে নামবে বলে মনে করেন গ্রিজম্যান। বলেন, ‘এমবাপ্পেকে আমাদের ভালো অবস্থায় রাখতে হবে। মাঠে যেন সে স্বস্তিতে থাকে তা নিশ্চিত করতে হবে। উরুগুয়ে হয়তো তাকে আটকাতে ভিন্নভাবে রক্ষণ সাজাবে। এটা কোয়ার্টার ফাইনাল। এমবাপ্পের বয়স মাত্র ১৯। সে শান্তই আছে। তার পরিপক্বতায় আমি মুগ্ধ। সে সবসময় শিখতে চায়। যখন সে আরো বেশি গোল করতে চাইবে, প্রতিপক্ষকে আঘাত করতে চাইবে আরো শীর্ষ খেলোয়াড় হয়ে উঠবে। এমবাপ্পে ম্যাচ জাগিয়ে তোলে। তাকে বলের সঠিক জোগান দেয়া আমাদের হাতে।’ ফ্রান্সের বিপক্ষে রক্ষণভাগের ভুলের খেসারত দেয় আর্জেন্টিনা। আক্রমণের দুই পরীক্ষিত সেনা সার্জিও আগুয়েরো ও গঞ্জালো হিগুয়েনকে একাদশের বাইরে রাখেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। এ বিষয়টি অবাক করেছে গ্রিজম্যানকেও। ফ্রান্স ফরোয়ার্ডের ভাষ্যমতে, ‘আর্জেন্টিনা হিগুয়েন ও আগুয়েরোকে বেঞ্চে রেখে মাঠে নামায় আমি অবাক হয়েছি। কিন্তু এটা তাদের কোচের পছন্দ। মাশ্চেরানো ও বানেগারের সঙ্গে যেন মেসির সংযোগ গড়ে না ওঠে তা নিশ্চিত করতে হতো। আমরা তা ভালোভাবেই করেছি।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর