ঢাকা, ২১ জুলাই ২০১৮, শনিবার

বিদ্রূপের শিকার রোনালদোর প্রেমিকাও

স্পোর্টস ডেস্ক | ৩ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার, ১০:০৬

এটাও ফুটবল উন্মাদনা? বিশ্বকাপের শেষ ষোলো রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছে ইউরোপজয়ী পর্তুগাল। এতে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তো বটেই, ভক্ত-সমর্থকদের অসন্তোষ থেকে ছাড় পাচ্ছেন না তার প্রেমিকা জর্জিনা রদ্রিগেজও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জর্জিনাকে নিয়ে চলছে ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ। রাশিয়ায় শেষ ষোলো রাউন্ডে উরুগুয়ের কাছে ২-১ গোলে হেরে এবারের বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেছে পাঁচবারের ব্যালন ডি অর’ পুরস্কারজয়ী (বর্ষসেরা) রোনালদোর পর্তুগালের। ম্যাচে রিয়াল তারকা রোনালদো নিজেও বেশ নিষ্প্রভ ছিলেন। সবমিলিয়ে দলের এমন বিদায়ে হতাশ, ক্ষুব্ধ সমর্থকরা। হতাশ নিশ্চয় রোনালদো নিজেও। এমন সময়ে স্বভাবতই পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রেমিকা জর্জিনা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রোনালদো এবং পর্তুগাল দলকে শুভকামনা জানিয়েছেন তিনি। যেটা দেখে ক্ষোভটা আরো বেড়ে গেছে সমর্থকদের।
ক্ষুব্ধ সমর্থকদের কয়েকজন জর্জিনার এমন পোস্টের নিচে উরুগুয়ের পতাকার ছবি দিয়ে বিদ্রূপ করেছেন। কেউ লিখেছেন, ‘গুড বাই পর্তুগাল’। এক সমর্থক লেখেন, ‘তোমার অবশ্যই এখন রোনালদোকে ঘরে যেতে বলা উচিত।’ বাদ যাননি ইরানের
সমর্থকরাও। গ্রুপপর্বে বিতর্কিত হারের জন্য পর্তুগালের উপর ক্ষেপে রয়েছেন তারাও। জর্জিনার পোস্টের নিচে তাদের কয়েকজন ইরানের পতাকা দিয়েছেন। কেউ লিখেছেন, ‘হ্যাঁ, তোমার বয়ফ্রেন্ড এখন তবে ঘরে ফিরছে!্থ, বাই বাই পর্তুগাল’। কেউ তো আরো এক ধাপ এগিয়ে। উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে পর্তুগালকে সমর্থন দিতে সোচিতে উপস্থিত ছিলেন জর্জিনা। এটাকেও অনেকে খোঁচানোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেছেন। লিখেছেন, ‘তোমার সবচেয়ে বড় ভুল ছিল ম্যাচটা দেখতে আসা। দুঃখজনক হলো, তুমি সৌভাগ্যবানদের একজন নও।’ ২৪ বছর বয়সী জর্জিনা ২০১৬ সাল থেকে রোনালদোর সঙ্গে আছেন। গত বছর তাদের ঘরে এসেছে কন্যা সন্তান অ্যালানা মার্টিনা। এছাড়া সারোগেট পদ্ধতিতে জন্ম নেয়া রোনালদোর দুই ছেলে আর এক মেয়েরও মা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।