× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

চীনা পণ্যের ওপর মার্কিন শুল্ক কার্যকর, বাণিজ্যযুদ্ধের আশঙ্কা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৬ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার, ১২:৫৩

চীন থেকে আমদানিকৃত পণ্যের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে কার্যকর করা হয়েছে। এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে চীনকে ২৫ শতাংশ শুল্ক দিতে হবে। বিশ্লেষকরা বলছেন, এটি বিশ্বের বৃহৎ দুই অর্থনীতির মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধ শুরুর ইঙ্গিত। এ খবর দিয়েছ বিবিসি।
খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র চীন থেকে ৩৪ বিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্য আমদানি করে। এসব পণ্যের ওপর ২৫ শতাংশ শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে কার্যকর করা হয়। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ওই শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিলেন। পাল্টা জবাবে যুক্তরাষ্ট্রের ৫৪৫টি পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপ করে চীন। বেইজিং বলেছে, চীনা পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপ করে বিশ্ব অর্থনীতির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাণিজ্য যুদ্ধ শুরু করছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জনগণের স্বার্থ রক্ষায় চীন বাধ্য হয়ে পাল্টা পদক্ষেপ নিয়েছে।
এ বছরের শুরুতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীন থেকে আমদানিকৃত ৫০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপের নির্দেশ দেন। বৃহস্পতিবারের পদক্ষেপের মাধ্যমে ট্রাম্পের ওই নির্দেশনার আংশিক বাস্তবায়ন করা হলো। চীনা পণ্যের ওপর মার্কিন শুল্ক আরোপের ফলে এশিয়ার শেয়ার মার্কেটে তেমন প্রভাব পড়েনি। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত হংকং ও টোকিওতে শেয়ারের দর ১.৩ শতাংশ বেড়েছে। আর সাংহাইতে সকালে কিছুটা দরপতন হলেও পরে তা ০.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।
শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত ট্রাম্পের রক্ষণশীল কর্মসূচির অংশ। যাতে বিশ্বে চলমান মুক্তবাজার অর্থনীতির মৌলিক মানদন্ডের লঙ্ঘন করা হয়েছে। গত কয়েক দশক ধরেই বিশ্ব বাণিজ্যে এই নীতির অনুসরণ করা হয়। ট্রাম্প বলেছেন, মার্কিন প্রযুক্তি ও বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের পাচার রোধ করতে এবং যুক্তরাষ্ট্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ নিশ্চিত করতে এই শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। আর হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা চীন থেকে আমদানিকৃত আরো ১৬ বিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্যের ওপর শুল্ক আরোপের বিষয়টি পর্যালোচনা করছেন। এর আগে ট্রাম্প ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, এ মাসে চীন থেকে আমদানিকৃত বাকী পণ্যগুলোর ওপরও শুল্ক আরোপ করা হতে পারে। চীন ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র মেক্সিকো, কানাডা ও ইউরোপের দেশগুলো থেকে আমদানিকৃত স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর শুল্ক আরোপ করেছেন। 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর