× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

ইব্রাহিমোভিচ-বেকহ্যামের পাল্টাপাল্টি চ্যালেঞ্জ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৭ জুলাই ২০১৮, শনিবার, ১০:৫৩

বিশ্বকাপ ফুটবলে এবার চ্যালেঞ্জ-পাল্টা চ্যালেঞ্জে নেমেছেন দুই সুপারস্টার জালাতান ইব্রাহিমোভিচ ও ডেভিড বেকহ্যাম। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা একে অন্যকে এই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে মেরেছেন। আজ শনিবার রাতে এবারের বিশ্বকাপ ফুটবলে কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও সুইডেন। ইংলিশ দলের সাবেক কৃতী ফুটবলার ডেভিড বেকহ্যাম। অন্যদিকে সুইডেনের তারকা খেলোয়ার ইব্রাহিমোভিচ। আজকের ম্যাচকে কেন্দ্র করে বেকহ্যামকে প্রথমে চ্যালেঞ্জ দিয়েছেন ইব্রাহিমোভিচ। বেকহ্যামকে উদ্দেশ্য করে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন, ইয়ো ডেভিড বেকহ্যাম যদি ইংল্যান্ড এ ম্যাচে বিজয়ী হয় তাহলে আপনাকে আমি ডিনার খাওয়াবো। তাতে আপনি পৃথিবীর যেখানেই খেতে পছন্দ করেন। আর যদি সুইডেন বিজয়ী হয় তাহলে আমি আইকিয়া থেকে যা চাইবো তা-ই আমাকে কিনে দিতে হবে। ওকে? কম যান নি ডেভিড বেকহ্যামও। তিনিও প্রায় একই মাত্রায় পাল্টা টুইট করেছেন।
উল্লেখ্য,  আইকিয়া হলো আসবাবপত্র ও গৃহস্থালি সামগ্রির বিক্রয় প্রতিষ্ঠান। ডেভিড বেকহ্যাম ও ইব্রাহিমোভিচ দু’জনেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, এসি মিলান, পিএসজি এবং এল এ গ্যালাক্সিতে খেলেছেন। কিন্তু আজ রাতে তারা একে অন্যের প্রতিপক্ষ। একদিকে বেকাহ্যামের ইংল্যান্ড। অন্যদিকে ইব্রাহিমোভিচের সুইডেন। কার দল আজকের রাতে শেষ হাসিটা হাসবে? এ নিয়ে নানা বিশ্লেষণ। এমন বিশ্লেষণের মাঝেই সম্ভবত ডেভিড বেকহ্যামের নজরে পড়ে গেছে ইব্রাহিমোভিচের ওই চ্যালেঞ্জ। হ্যাঁ, তাই। তার এ বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন বেকহ্যামও। তিনি পাল্টা চ্যালেঞ্জে টুইটে লিখেছেন, যদি সুইডেন বিজয়ী হয় তাহলে আমি আপনাকে ব্যক্তিগতভাবে আইকিয়াতে নিয়ে যাবো এবং লস অ্যানজেলেসে আপনার নতুন বাসার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবই আমি কিনে দেবো। কিন্তু যদি ইংল্যান্ড বিজয়ী হয় তাহলে আমি চাইবো আপনি ওয়েম্বলিতে আসুন ইংল্যান্ডের একটি গেম দেখার জন্য। এ সময় আপনার গায়ে থাকতে হবে ইংল্যান্ডের শার্ট। খেলার মধ্য বিরতিতে উপভোগ করতে পারবেন মাছ ও চিপস। উল্লেখ্য, কথার লড়াইয়ে থাকলেও এই দুই তারকা খেলোয়ার নিজেদের জাতীয় স্কোয়াডে নেই বিশ্বকাপে। অনেকেই এপ্রিলে মনে করেছিলেন রাশিয়ায় চূড়ান্ত খেলায় সুইডেনের স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে ৩৬ বছর বয়সী ইব্রাহিমোভিচ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি ঠাঁই পান নি। তাই ক্ষোভের সঙ্গে তিনি বলেছিলেন, আমাকে ছাড়া বিশ্বকাপ কোনো বিশ্বকাপই নয়। উল্লেখ্য, এই দুই সুপারস্টারের ইন্সটাগ্রামে অনুসারীর সংখ্যা ৮ কোটি ১০ লাখের বেশি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর