ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার

‘ব্রাজিলিয়ানরা ভেবেছিল তারা চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে’

স্পোর্টস ডেস্ক | ৮ জুলাই ২০১৮, রোববার, ১০:২৯

কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের জয়ের পেছনে বড় অবদান ছিল থিবো কুরতোয়া’রও। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে রেকর্ড ৯টি সেভ করেন এ বেলজিয়ান গোলরক্ষক। আর জয় শেষে থিবো কুরতোয়া বলেন, অতি আত্মবিশ্বাসের কারণেই হার দেখেছে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। ইংলিশ ক্লাব চেলসির বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কুরতোয়া বলেন, ব্রাজিলিয়ানরা এরই মধ্যে ভেবে ফেলেছিল যে তারাই বিশ্বকাপ জিতে গিয়েছে। কিন্তু বাস্তবতা দেখুন, আমরা তাদের হারিয়েছি।’ এবারের বিশ্বকাপে এক ম্যাচে ৯ সেভের কৃতিত্ব রয়েছে আর কেবল দুই জন গোলরক্ষকের। গ্রুপ পর্বে গতবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিপক্ষে ৯টা সেভ দেখান মেক্সিকোর গিলার্মো ওচোয়া। আর ২০১০’র চ্যাম্পিয়ন স্পেনের বিপক্ষে এবারের শেষ ষোলো রাউন্ডে এমন নৈপুণ্য দেখান রাশিয়ার গোলরক্ষক ইগর আকিনফিয়েভ। ব্রাজিলের বিপক্ষে জয় শেষে কুরতোয়া বলেন, ‘আমার মনে হয় যে, আমরা আমাদের পরিকল্পনামাফিক খেলতে পেরেছি। আমাদের রক্ষণভাগ দুর্দান্ত ছিল। তবু খেলার ২০ মিনিট বাকি থাকতে এক গোল হজম করাটা হতাশার ছিল। ভাগ্যিস কোনো ক্ষতি হয়নি।’ ম্যাচের যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে ডি বক্সের মাথা থেকে নেয়া নেইমারের বাঁকানো শট শূন্যে লাফিয়ে অসাধারণ দক্ষতায় ফিরিয়ে দেন কুরতোয়া। আর ম্যাচ শেষে কুরতোয়া বলেন, নেইমার এমন বাঁকানো শট নিতে অভ্যস্ত, তা জানি আমি। আমি এমন শটের জন্য প্রস্তুত ছিলাম। দিনটা আমাদের ছিল। বিশ্বকাপে খেলাটা আমার ছোট বেলার স্বপ্ন। আগামী ১০ই জুলাই প্রথম সেমিফাইনালে ১৯৯৮’র চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের মুখোমুখি হবে বেলজিয়াম। ম্যাচের ভেন্যু সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম।
পিকফোর্ডকে উপহাস করিনি আমি
আসরের গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় দেখে বেলজিয়াম। দূরপাল্লার কোনাকুনি শটে জয়সূচক গোলটি পান আদনান ইয়ানুজাই। ইংল্যান্ড গোলরক্ষক জর্ডন পিকফোর্ড ডানপাশে ঝাঁপিয়ে তা ফেরাতে চেষ্টা করলেও বল নাগালের বাইরে থেকে যায় তার। আর ম্যাচ শেষে বেলজিয়াম গোলরক্ষক বলেন, ‘সে (পিকফোর্ড) আমার চেয়ে ১০ সেন্টিমিটার খাটো। আমি হলে তা ফেরাতে পারতাম।’ ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে ফের প্রসঙ্গটা আসে কুরতোয়ার সামনে। আর ২৬ বছর বয়সী কুরতোয়া বলেন, জর্ডান পিকফোর্ডের প্রসঙ্গটি আমি পরিষ্কার করতে চাই, আমি তার শারিরীক উচ্চতা নিয়ে কখনই উপহাস করিনি। সে দারুণ একজন গোলরক্ষক। সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে তার নৈপুণ্য নিয়ে সমালোচিত হন চেলসি গোলরক্ষক থিবো কুরতোয়া। আর ব্রাজিলের বিপক্ষে জয় শেষে কুরতোয়া বলেন, অন্যায়ভাবে সমালোচনা করা হচ্ছিল আমার। তবে, আমি প্রমাণ করতে পেরেছি, আমি কে এবং এখানে কেন আছি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।