ঢাকা, ২১ জুলাই ২০১৮, শনিবার

‘মেসির মতো হ্যাজার্ডকে বোতলবন্দি করবে ফ্রান্স’

স্পোর্টস ডেস্ক | ৯ জুলাই ২০১৮, সোমবার, ১০:০৬

দ্বিতীয় রাউন্ডে লিওনেল মেসিকে বোতলবন্দি করে রাখে ফ্রান্স। এবার একই ফর্মুলা বেলজিয়ামের বিপক্ষে কাজে লাগাতে চায় দিদিয়ের দেশমের শিষ্যরা। সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের অধিনায়ক ইডেন হ্যাজার্ডকে আটকানোর কৌশল নিয়ে নামছে ফ্রান্স। ডিফেন্ডার লুকাস হার্নান্ডেজ বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসিকে বিদায় করেছি। তিনি বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেননি। এটাই সত্য, বেলজিয়ামের বিপক্ষেও হ্যাজার্ডকে নিরাশ করার মতো খেলোয়াড় আমাদের রয়েছে। যতটা সম্ভব তাকে বলের সংস্পর্শের বাইরে রাখতে চাই।
উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে ফ্রান্সের প্রথম গোলটি পান ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারান। বিশ্বকাপে এটিই তার প্রথম গোল। আর এবার ভারানের ভাবনাও বেলজিয়ামের বিপক্ষে সেমিফাইনাল ঘিরে। ভারন বলেন, ফাইনালে উঠতে হলে অবশ্যই বেলজিয়ামের আক্রমণভাগের দুই খেলোয়াড় রমেলু লুকাকু ও এডেন হ্যাজার্ডকে থামাতে হবে। রাশিয়ার সেইন্ট পিটার্সবার্র্গে মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ফ্রান্স ও বেলজিয়াম। শুক্রবার অপর কোয়ার্টার-ফাইনালে আসরের সর্বাধিক পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে ২-১ গোলে হারায় বেলজিয়াম। ম্যাচটিতে দুর্দান্ত খেলা বেলজিয়ামের দুই ফরোয়ার্ড লুকাকু ও হ্যাজার্ডকে নিয়ে ভারান বলেন, এটা বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। এখানে কেউই ফেভারিট নয়। এখানে জিততে হলে নিজেদের ছাড়িয়ে যেতে হবে এবং সর্বোচ্চটা দিতে হবে। তবে সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে এ ম্যাচে জিততে হলে আমাদের অবশ্যই লুকাকু এবং হ্যাজার্ডকে আটকাতে হবে। এটা কঠিন একটা ম্যাচ হবে। রমেলু লুকাকুর শারীরিক শক্তি যেকোনো রক্ষণের জন্যই সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। তাকে কোনো ফাঁকা জায়গা দেয়া চলবে না। কারণ, এবারের আসরে সে দুর্দান্ত ফুটবল খেলছে। হ্যাজার্ডের ক্ষেত্রেও তাই। লীগে আমি তার বিপক্ষে খেলেছি। তার দারুণ গুণাবলি রয়েছে। সে একজন চমৎকার ড্রিবলিং করতে পারে। তাকেও আমরা কোনো ফাঁকা জায়গা দেবো না। শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়েকে ২-০ গোলে হারায় ফ্রান্স। আন্তোইন গ্রিজমানের ফ্রি-কিকে ভারানের হেডে এগিয়ে যায় কোচ দিদিয়ের দেশমের ফ্রান্স। এদিন ফরাসিদের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন গ্রিজম্যান। এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের তারুণ্যনির্ভর দলটি যেভাবে এগিয়ে চলছে তাতে ভীষণ খুশি ভারানে। দলের পারফরম্যান্স নিয়ে শনিবার রিয়াল মাদ্রিদের এই সেন্টার-ব্যাক বলেন, এধরনের বড় প্রতিযোগিতাগুলোতে অভিজ্ঞতা বেশ কাজে দেয়। ছোট ছোট ভুল এড়াতে তা সহায়তা করে। আমরা অন্যান্য দলের তুলনায় অপেক্ষাকৃত তরুণ একটা দল। তবে এখন পর্যন্ত আমরা পরিণত খেলা দেখিয়েছি। টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার পর থেকেই আমরা উন্নতি করছি। রক্ষণে আমরা অনেক শক্তিশালী। আমরা যেকোনো সময় আমাদের খেলায় ভিন্নতা আনতে পারি, যা আমাদের বড় এক শক্তি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।