× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

নির্বাচনের আগে প্রশাসনে বড় পদোন্নতি আসছে

শেষের পাতা

দীন ইসলাম | ১১ জুলাই ২০১৮, বুধবার, ১০:০০

নির্বাচনের আগে প্রশাসনে বড় পদোন্নতি দিতে যাচ্ছে সরকার। এবারও উপ-সচিব, যুগ্ম সচিব ও অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দেয়া হবে। এরই মধ্যে সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড (এসএসবি) তিনটি বৈঠক করেছে। দুইটি বৈঠকে শূন্য 
পদের সংখ্যা নির্ধারণ, কীভাবে পদোন্নতি দেয়া হবে তার করণীয়সহ খুঁটিনাটি নানা বিষয় ঠিক করা হয়। সর্বশেষ গত ৮ই জুলাইয়ে হওয়া বৈঠকে পদোন্নতির বিষয়ে ওয়ান বাই ওয়ান আলোচনা হয়েছে। তাই প্রশাসনের তিন স্তরে জুলাই মাস জুড়েই বৈঠক চলবে। এদিকে প্রশাসনের তিন স্তরে পদের চেয়ে বেশি সংখ্যক কর্মকর্তা কর্মরত থাকলেও পদোন্নতি দেয়া হচ্ছে। এনিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে তদবিরও শুরু হয়েছে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের পদোন্নতিতে উপ-সচিব পদে ২৫তম ব্যাচ, যুগ্ম সচিব পদে ১৫, ১৭ ও ১৮তম ব্যাচ এবং অতিরিক্ত সচিব পদে ১০ম ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হবে। এর আগে গত এপ্রিলে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সিনিয়র সচিব, সচিব ও ভারপ্রাপ্ত সচিব বরাবরে চিঠি দেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. তমিজুল ইসলাম খান। ওই চিঠিতে উপ-সচিব পদে পদোন্নতির জন্য আগ্রহী বা যোগ্য বিভিন্ন ক্যাডারের ২৫তম ব্যাচ পর্যন্ত কর্মকর্তাদের তালিকা চেয়ে বলা হয়, যেসব কর্মকর্তার সিনিয়র স্কেল পদে ন্যূনতম পাঁচ বছর চাকরিসহ সংশ্লিষ্ট ক্যাডারের সদস্য হিসেবে অন্যূন ১০ বছর পূর্ণ হয়েছে তাদের মধ্য থেকে ১০ জনের (জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে) নামের তালিকা পাঠাতে হবে। ওই চিঠির ভিত্তিতে এরই মধ্যে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ থেকে নামের তালিকা পেয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রশাসনে তিন স্তরে এবার পদোন্নতি অনেকটা ‘উদার’ভাবে চিন্তা করা হবে। কর্মকর্তাদের বড় ধরনের কোনো ঝামেলা না থাকলে এ দফায় পদোন্নতি পেয়ে যাবেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্র মতে উপ-সচিব পদে এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক পদোন্নতি বঞ্চিতকে বিবেচনায় নেয়া হবে। পাশাপাশি নতুন করে প্রশাসন ক্যাডারের ২৫তম ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হবে। সর্বশেষ উপ-সচিব পদে পদোন্নতিতে ২৪তম ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হয়েছিল। যুগ্ম সচিব পদে সর্বশেষ পদোন্নতিতে ১৩তম ব্যাচকে বিবেচনায় নেয়া হয়। এবার ১৫, ১৭ ও ১৮তম ব্যাচকে এক সঙ্গে বিবেচনায় নেয়া হতে পারে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, তিনটি ব্যাচই ছোট থাকায় তারা এক সঙ্গে যুগ্ম সচিব পদে পদোন্নতি পেতে পারেন। এদিকে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতিতে ১০তম ব্যাচকে এবার বিবেচনায় নেয়া হবে। সর্বশেষ পদোন্নতিতে নবম ব্যাচ পর্যন্ত বিবেচনায় নেয়া হয়। তবে ১১তম ব্যাচ চাইছে অতিরিক্ত সচিব পদের পদোন্নতিতে নিজেরা ঢুকে যেতে। এজন্য ১১ ব্যাচের নেতৃত্বদানকারীরা চেষ্টা তদবির করছেন। এর আগে গত বছরের ১১ই ডিসেম্বর প্রথম দফায় ১২৮ জন যুগ্ম সচিবকে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এরপর ২১শে ডিসেম্বর ১৯৩ জন উপ-সচিবকে যুগ্ম সচিব পদে পদোন্নতি দেয়া হয়। সর্বশেষ এ বছরের ২০শে ফেব্রুয়ারি প্রশাসনে সিনিয়র সহকারী সচিব ও সমমর্যাদার ৩৯১ জন কর্মকর্তাকে উপ-সচিব পদে পদোন্নতি দেয়া হয়। এটাই এখন পর্যন্ত প্রশাসনের সর্বশেষ পদোন্নতি। তাই ছয় মাস যেতে না যেতেই প্রশাসনে নতুন করে পদোন্নতির বৈঠক শুরু হয়েছে। তবে নির্বাচনের আগেই পদোন্নতি দেয়া হবে- এমনটা নিশ্চিত করেছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এপিডি উইংয়ের কর্মকর্তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর