× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
ফ্রাঙ্কো-জার্মান দূতাবাসে চুক্তি সই

ভাষা ও সংস্কৃতির উৎকর্ষতায় বাংলাদেশে কাজ করবে ইউনিক

দেশ বিদেশ

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১০:২১

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ, বৃটিশ কাউন্সিল ও গ্যেটে ইনস্টিটিউট নিয়ে ‘ইউনিক বাংলাদেশ’র আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হলো। এ নিয়ে গতকাল ফ্রাঙ্কো জার্মান দূতাবাসে প্রতিষ্ঠানত্রয়ের মধ্যে একটি চুক্তিও সই হয়। চুক্তি সই অনুষ্ঠানে জানানো হয়- সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের প্রচারণা ও সংস্কৃতির পারস্পরিক বোঝাপড়ায় কাজ করবে ইউনিক বাংলাদেশ। আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ, বৃটিশ কাউন্সিল ও গ্যেটে ইনস্টিটিউট ইউরোপীয় উদ্যোগ ইউনিক (বাংলাদেশ)-এর ছাতার নিচে থেকে বাংলাদেশে ভাষা ও সংস্কৃতির উৎকর্ষতায় কাজ করবে। চুক্তিসই অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন। সেখানে তিনি বলেন, বাংলাদেশের ঐতিহ্য বেশ সমৃদ্ধ। এগুলো দুই হাজার বছরের পুরনো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পূর্ণ সহযোগিতায় বাংলাদেশ সরকার ঐতিহ্যগুলো সংরক্ষণে কাজ করছে। ইউনিক প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘চমৎকার এই ইনস্টিটিউটের সঙ্গে আমরা অংশীদার হবো।’ বাংলাদেশে ইইউ রাষ্ট্রদূত রেনাসিয়া তিরিঙ্ক এ দেশে ‘ইউরোপীয় ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর কালচার’কে সহযোগিতার অনন্য উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমরা একসঙ্গে অনেক কাজ করতে চাই। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ইউনিক বাংলাদেশের লক্ষ্য ইউরোপীয় সাংস্কৃতিক পরিচয়ের ওপর আলোকপাত করে বাংলাদেশের অংশীদার ও অংশীজনদের সঙ্গে নানা কর্মসূচি আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে ইইউর উপস্থিতি বাড়ানো। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ফরাসি রাষ্ট্রদূত মারি আনিক বুহ্‌দাঁ, জার্মান রাষ্ট্রদূত টমাস হেনরিখ প্রিনজ উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর