× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২২ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার

৬৬ বছর পর নখ কাটলেন শ্রীধর

রকমারি

| ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ১১:৫৭

সময়টা ২০১৬৷ রাতারাতি বিশ্ববিখ্যাত হয়ে গিয়েছিলেন৷ নাম তুলছিলেন গিনেস বুকে৷ বাঁ হাতের লম্বা নখের সৌজন্যে সাফল্যের শীর্ষ পৌঁছে দিয়েছিল পুনের বাসিন্দা বছর ৮২-র শ্রীধর চিল্লালর জীবন৷ কিন্তু, এখন সবই অতীত৷ বয়সের ভারে দীর্ঘ ৯০৯.৬ সেন্টিমিটার নখ আর বহন করতে পারছেন না শ্রীধর৷ অগত্যা নখ কাটার সিদ্ধান্ত৷ আর সেই নখ কেটেও গড়লেন রেকর্ড৷ ৬৬ বছর পর দীর্ঘ নখ কেটে নজির গড়লেন তিনি৷২০১৬ সালে বিশ্বের দীর্ঘতম নখের সৌজন্যে ‘গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস’ এবং ‘রিপ্লিজ বিলিভ ইট অর নট’-এ নাম লেখান বছর ৮২-র শ্রীধর চিল্লাল৷ বিশ্ব রেকর্ড গড়তেই বৃদ্ধ শ্রীধরকে নিয়ে শুরু হয় নানান কৌতুহল৷ নানান অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ আসতে শুরু করে৷ ধীরে ধীরে বদলাতে শুরু করে শ্রীধরের সাধারণ জীবন৷ কিন্তু, এখন পরিস্থিতি বদলেছে৷ ভেঙেছে শরীর৷ চিকিৎসকের পরামর্শে বাঁহাতের নখ কাটার সিদ্ধান্ত নেন৷ শেষবার ১৯৫২ সালে কেটেছিলেন শ্রীধর৷ কিন্তু, নখ কাটার একই শর্ত ছিল৷ শ্রীধরের একটাই আরজি ছিল, তাঁর নখ যেন সংরক্ষণ করা হয়৷ সেই মতো শুরু হয় খোঁজখবর নেওয়ার কাজ৷ শ্রীধরের এই ইচ্ছাকে মান্যতা দেয় ‘রিপ্লিজ বিলিভ ইট অর নট’ মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ৷ সেখানেই সংরক্ষিত হয় শ্রীধরের নখটি৷ সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, নিউইয়র্কে রিপ্লির সংগ্রহশালায় তা সংরক্ষিত রাখা থাকবে৷ নখ কাটানোর জন্য শ্রীধরকে নিউইয়র্কে নিয়ে যায় রিপ্লি কর্তৃপক্ষ৷ সেখানে এই নখ কাটা উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়৷ পরে চিকিৎসক আনিয়ে কাটা হয় শ্রীধরের বিশ্বের দীর্ঘতম নখ৷ ‘গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে’র নথি বলছে, এতদিন শ্রীধরের বাঁহাতের নখের মোট দৈর্ঘ্য হল ৯০৯.৬ সেন্টিমিটার৷ এর মধ্যে, বাঁহাতের বুড়ো আঙুলের নখের দৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি৷ ১৯৭.৮ সেন্টিমিটার৷ অর্থাৎ, প্রায় ২ মিটার৷সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর