× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

‘ইংলিশ মিডিয়ার ব্যঙ্গ আমাদের শক্তি যুগিয়েছে’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১২ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ২:৫৬

ইংলিশ মিডিয়ার বেশ কড়া সমালোচনা করেছেন ক্রোয়েশিয়ার বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সুপারস্টার লুকা মদরিচ। তিনি বলেছেন, ইংলিশ মিডিয়ার আরো নম্র হওয়া উচিত। ক্রোয়েশিয়াকে ‘ওয়াকিং ডেড’ বা মৃত মানুষের হেঁটে বেড়ানো হিসেবে আখ্যায়িত করে ইংল্যান্ডের মিডিয়া। এতে মনে খুব চোট লেগেছিল মদরিচের। তবে তিনি এমন ব্যঙ্গ করার প্রতিক্রিয়া বা জবাব দেয়ার জন্য সময়ের অপেক্ষা করছিলেন। বুধবার ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় জানানোর পর ৩২ বছর বয়সী মদরিচ তার সমালোচনার তরবারি খুললেন। খেলার প্রথমার্ধে ক্রোয়েশিয়া ১-০ তে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে ২-১ গোলে জয় পায়। ইংল্যান্ড দলের নামী দামী খেলোয়াড়দের ফাঁক গলিয়ে ক্রোয়েশিয়া বল ঢুকিয়ে দেয় তাদের জালে।
প্রথম এই কাজটি করেন ইভান পেরিসিক। আর ইংল্যান্ডের স্বপ্নের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠোকেন মারিও মানজুকিচ। উল্লেখ্য, ক্রোয়েট টিমকে ‘ওয়াকিং ডেড’ হিসেবে আখ্যায়িত করে ইংলিশ মিডিয়া। ইন স্পোর্টসকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে মদরিচ বলেন, ইংলিশ মিডিয়ার এসব শব্দ বা কথা ক্রোয়েটদেরকে বাড়তি শক্তি যুগিয়েছে। এসব মিডিয়া যে ভুল তা প্রমাণ করার জন্য মুখিয়ে উঠেছিল ক্রোয়েটরা। মদরিচ বলেন, তাদের (ইংলিশ) সাংবাদিক ও টেলিভিশন পন্ডিতরা এই ম্যাচের আগেই কথাবার্তা শুরু করেছিলেন। তারা বলেছিলেন, আমরা ক্লান্ত হয়ে পড়েছি। আমরা ওয়াকিং ডেড হয়ে গিয়েছি। তাদেরকে বলি আরও নম্র হওয়া উচিত। অন্যকে আরো সম্মান দেয়া জানা উচিত। যখন কেউ সেমি ফাইনাল খেলে তখন সে ক্লান্ত হয় না। এটা অসম্ভব। জানেন, সবাই মিলে কিভাবে কাজ করতে হয়। আমরা তা প্রমাণ দিয়েছি। আর্জেন্টিনার পরে এটাই ছিল আমাদের সবচেয়ে সেরা খেলা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর