× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

ইয়েমেনের কারাগারে নির্যাতনের অভিযোগ অ্যামনেস্টির

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার, ৯:৪৬

সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃক পরিচালিত ইয়েমেনের কারাগারগুলোতে গুম, হত্যা ও নির্যাতনের অভিযোগ এনে তদন্তের দাবি জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি দাবি করেছে, তারা এই কারাগারগুলোতে গুম, নির্যাতন ও বিভিন্ন ধরনের অত্যাচারের প্রমাণ পেয়েছে। তবে আরব আমিরাত অ্যামনেস্টির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, প্রায় ৭০ জনের সাক্ষাৎকার নিয়ে জানা গেছে বন্দিশালাগুলোয় বেআইনি ও নির্মম অত্যাচার চালানো হচ্ছে। অ্যামনেস্টি আরব আমিরাত সরকারকে দ্রুত এই নির্যাতন বন্ধ করতে ও বন্দিদের মুক্তি দিতে আহ্বান জানিয়েছে। একইসঙ্গে সংস্থাটি বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের আরব আমিরাতকে গোয়েন্দা সহযোগিতা ও অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করা উচিত। তাদের দাবি, ২০১৬ সালের মার্চ থেকে ২০১৮ সালের মে পর্যন্ত প্রায় ৫১ জন বন্দি গুমের শিকার হয়েছেন। এখনো তাদের মধ্যে ১৯ জন নিখোঁজ রয়েছেন।
অ্যামনেস্টি জানিয়েছে, তারা বর্তমান ও মুক্তিপ্রাপ্ত বন্দি, নিখোঁজদের আত্মীয়, সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে। প্রতিবেদনে আরো জানানো হয়েছে, গোপন কারাগারগুলোতেই সব থেকে ভয়াবহ নির্যাতন চালানো হয়। সাবেক এক বন্দি বলেছে, আরব আমিরাতের সেনারা রক্ত বেরুনোর আগ পর্যন্ত তার মলদ্বারে একধরণের তরল প্রবেশ করাতো। গত বছর বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল ইয়েমেন সরকারের অগোচরে আরব আমিরাত ও তার মিত্র সেনারা গোপন কারাগার পরিচালনা করছে। ২০১৫ সাল থেকেই আরব আমিরাত সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন সামরিক অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। জুন মাসে এসোসিয়েটেড প্রেস প্রায় ১০০টি কারাগারে যৌন নির্যাতন ও অত্যাচারের তথ্য প্রচার করে। বুধবার ইয়েমেন সরকার আরব আমিরাতকে এ ধরনের কারাগার বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর