× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

চান্দিনায় অলির গাড়িবহরে হামলা

শেষের পাতা

চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি | ১৩ জুলাই ২০১৮, শুক্রবার, ১০:০৮

কুমিল্লার চান্দিনায় লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির-এলডিপি’র সভাপতি ড. কর্নেল অলি আহমদ (অব.) বীরবিক্রম-এর গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। গতকাল বেলা পৌনে ১টায় চান্দিনা থানা থেকে তিন শ’ গজের মধ্যে চান্দিনা পাইলট স্কুল খেলার মাঠ সংলগ্ন সড়কে ওই ঘটনা ঘটে। চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ ডিগ্রি কলেজ ক্যাম্পাস-২ এ নবনির্মিত মমতাজ আহমেদ ভবন-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করতে যাওয়ার পথে দুষ্কৃতকারীরা তার গাড়িতে হামলা চালিয়ে ইটপাটকেল ছুড়ে। এতে তাকে বহনকারী পাজেরো গাড়ির (ঢাকা মেট্রো-ঘ-১৩-৪৬৪৬) পেছনের গ্লাস সম্পূর্ণ ভেঙে যায়। তবে ড. কর্নেল অলি আহমদ অক্ষত রয়েছেন।
এদিকে অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে পুলিশ ও প্রশাসনের সমালোচনার কারণ এলডিপি’র সভাপতি ড. কর্নেল অলি আহমদ। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে ওই হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান।

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন- ‘পুলিশের সামনে মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীরা হামলা করবে, এজন্য এ দেশকে স্বাধীন করিনি। আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি, আওয়ামী লীগকে ধন্যবাদ জানাই। যার কর্মীরা মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করতে চায়! পুলিশ ও ইউএনও অফিসের পাশে, আগে-পেছনে একাধিক পুলিশ অফিসার এমনকি ওসির উপস্থিতিতে এ ধরনের হামলা আমি কল্পনাও করতে পারি না। তারা দেশের ক্ষতি করেছে, আওয়ামী লীগের ক্ষতি করেছে।
বিকালে চান্দিনা পৌর এলডিপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন বন্ধ করে দেয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন- ‘রাজনৈতিক দলের সভা, সমাবেশের জন্য ইউএনও, ওসি’র অনুমতি নিতে হবে কেন। এটা গণতন্ত্রের জন্য হুমকি।’ হামলার সময় চান্দিনা থানার ওসি’র নীরব ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন তিনি।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির-এলডিপি’র মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ। সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন- ‘একজন বীরবিক্রমকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়েছে। এই বিচারের ভার আমি চান্দিনাবাসীর নিকট দিলাম। জনগণ সন্ত্রাসীদের পক্ষে থাকে না। আগামী নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমেই জনগণ এর বিচার করবে।’ পুলিশ মাস্তানদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে সহযোগিতা করেছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন কলেজের আজীবন দাতা সদস্য মিসেস মমতাজ আহমেদ, পরিচালনা পর্ষদ সদস্য সুলতান মঈন আহমেদ রবীন। অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন কলেজ অধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম ভূঁইয়া। সঞ্চালনা করেন কলেজের আইসিটি বিভাগের প্রভাষক মো. গিয়াস উদ্দিন ভূঁইয়া।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা এলডিপি’র সভাপতি কেএম শামসুল হক মাস্টার, চান্দিনা উপজেলা এলডিপি’র সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. আতিকুর রহমান, কেন্দ্রীয় গণতান্ত্রিক যুবদল সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল কাশেম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবু তাহের, চান্দিনা পৌর এলডিপি’র আহ্বায়ক মো. শাহ আলম, চান্দিনা পৌর গণতান্ত্রিক যুবদল সাধারণ সম্পাদক মো. জামশেদ আহমেদ জাকি, গণতান্ত্রিক যুবদল নেতা মো. মনির হোসেন শানু, গণতান্ত্রিক ছাত্রদল নেতা মো. সাজ্জাদ হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে কলেজের শিক্ষকমণ্ডলী, ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর