× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, বুধবার

মুসলিম নারীদের নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করে বিপাকে বরিস জনসন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৮ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৯:৪৯

মুসলিম নারীদের নেকাব পরা নিয়ে অপমানজনক মন্তব্য করায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন বৃটেনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন। মঙ্গলবার দৈনিক টেলিগ্রাফে প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি লিখেছেন, নেকাব পরা মুসলিম নারীদের চিঠির বাক্সের মতো দেখায়। তাদের ব্যাংক ডাকাতের সঙ্গেও তুলনা করেন বরিস জনসন। তার এ মন্তব্যের পরে বৃটেনজুড়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি। বৃটেনে থাকা মুসলিম গ্রুপগুলো কনজারভেটিভ পার্টির মধ্যে থাকা ইসলামভীতি তদন্ত করে দেখার আহ্বান জানিয়েছে।

বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা নাজ শাহ বলেছেন, বরিস জনসনের বর্ণবাদী মন্তব্য হেসে উড়িয়ে দেয়া যায় না। তারা সব বুঝেই এ ধরনের মন্তব্য করেছেন এবং একটি জাতীয় দৈনিকে ছেপেছেন। প্রধানমন্ত্রী তেরেজা মে’কে অবশ্যই এই ভয়ানক ইসলামভীতিকে তিরস্কার করতে হবে। একইসঙ্গে তিনি বরিস জনসনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।
আরেক লেবার নেতা ডেভিড ল্যামি টুইটারে লিখেছেন, বৃটেনের রাস্তায় দুর্বৃত্তরা মুসলিম নারীদের বোরকা খুলে ফেলছে এবং বরিস জনসন তাদের চিঠির বাক্সের সঙ্গে তুলনা করছেন। অনেকেই লিখেছেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে এ ধরনের মন্তব্য কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

বৃটেনে ইসলামভীতি নিয়ে কাজ করছে টেল মামা নামের একটি এনজিও। তারা বলেছে, বরিস জনসনের এ ধরনের মন্তব্য মুসলিম নারীদের জন্য অপ্রীতিকর। মুসলিম নারীদের আবেগ, মানসিক অবস্থা সম্পর্কে তার কোনো ধারণাই নেই। তার আমাদের সঙ্গে থেকে দেখা দরকার কীভাবে এ ধরনের মন্তব্য মুসলিম নারীদের ভোগায়। হাউজ অব লর্ডসের সদস্য সায়িদা ওয়ার্সি কনজারভেটিভ পার্টির মধ্যে ইসলামভীতি সম্পর্কে তদন্তের আহ্বান জানান। যাদের দোষী পাওয়া যাবে তাদের নাম প্রকাশ করতে হবে ও দল থেকে বহিষ্কার করতে হবে। একই দাবিতে এ বছর কনজারভেটিভ পার্টির কাছে দুটি চিঠি পাঠিয়েছে দ্য মুসলিম কাউন্সিল অব বৃটেন (এমসিবি)।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Muhammed Haque
৮ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৬:০৯

During his final London Mayoral Election campaign BORIS reminded us about his grandfather who was Muslim and HAFIZ of Qur'an, and now same BORIS mocking our way of life !!

অন্যান্য খবর