× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

সিনবাদকে খাওয়ানো হচ্ছে আঙ্গুর, মাল্টা

রকমারি

মোঃ মতিউর রহমান, সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি | ৮ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৩:৩৬

পবিত্র ঈদুল আজহার হাট কাঁপাতে প্রস্তুত সাটুরিয়ার বিল্লাল হোসেনের ৪০ মন ওজনের ষাঁড় সিনবাদ। একবছর আগে কেনা এ ষাঁড়টি ঈদুল আযহা কে সামনে রেখে সম্পূর্ন দেশী পদ্বতিতে লালন পালন করে বড় করেছেন। এখন চলছে শেষ প্রস্তুতি। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতিদিনই ভিড় করছে এক নজর সিনবাদকে দেখার জন্য।
যে সিনবাদ নামে ষাঁড়টি এবার ঈদে তাকলাগানোর জন্য শেষ প্রস্তুতি নিচ্ছে সে খামারি হচ্ছে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার দরগ্রাম ইউনিয়নের সাফুল্লি গ্রামের  মৃত: আব্দুল মালেকের পুত্র বিল্লাল হোসেন (৪৫)।
বিল্লাল হোসেন ১ বছর আগে সাটুরিয়া উপজেলার গোপালপুর গ্রাম থেকে ২ বছর বয়সী হলিস্টিন ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড়টি কিনে আনেন। কোরবানী ঈদে বিক্রি করার জন্য লালন পালন করবেন তাই নাম রাখেন সিনবাদ। শুরু থেকেই দেশীয় পদ্বতিতে সম্পূর্ন প্রাকৃতিক খাবার খাইয়ে লালন করতে থাকে সিনবাদকে।  
বিল্লাল হোসেন ৪০ মন ওজনের ষাঁড়টি দেখার জন্য আজ বুধবার সকালে বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় খামারি বিল্লাল তার সিনবাদকে যতœ নিতে ব্যস্ত।
পাকা গোয়ালে ঝক ঝক করছে। চারদিকে বাঁশের আড়ার সঙ্গে থড়ে থড়ে কলা, আঙ্গুর, মালটা সাজানো। রাখাল মাঝে মাঝে তা ছিড়ে খাওয়াচ্ছেন। পাকা মেজেতে বেশী ওজনের ষাঁড়টির পায়ের গোড়ালি ব্যাথা না হয় সে জন্য ম্যাট বসিয়েছেন। সার্বক্ষনিক ঠান্ডা করার জন্য ২ টি সিলিং ফ্যান, ২ টি ঝুড়ি ফ্যান ও একটি ষ্ট্যান্ড ফ্যান ব্যাবহার করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর