× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার

রমিজ উদ্দিন কলেজের সামনে জেব্রাক্রসিং ও স্পিড ব্রেকার নির্মাণ করছে ডিএনসিসি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৮ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৫:৪২

কুর্মিটোলা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের সামনের প্রধান সড়কে একটি জেব্রাক্রসিং স্থাপনের কাজ শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ কাজের উদ্বোধন করেন ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেসবাহুল ইসলাম। এসময় তিনি বলেন, নিরাপদে যাত্রী পারাপার এবং সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধ করার লক্ষ্যে এই কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে পর্যায়ক্রমে স্বল্পতম সময়ের মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকার প্রয়োজনীয় সকল স্থানে জেব্রাক্রসিং ও গতিরোধক/হাম্প স্থাপন করা হবে। এছাড়া বিদ্যমান ক্ষতিগ্রস্থ জেব্রাক্রসিং ও স্পিড ব্রেকার/হাম্প সংস্কার করা হবে। দিনের বেলায় যানজট থেকে এড়াতে পুরো কর্মসূচির কাজ রাতের বলোয় করা হবে বলেও জানান তিনি। এ কর্মসূচি উদ্বোধনের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসির প্যানেলভূক্ত মেয়র মোস্তফা জামাল ও আলেয়া সারোয়ার ডেইজী, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ সাঈদ আনোয়ারুল ইসলাম ও শহীদ রমিজ উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ নূর নাহার ইয়াসমিন, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই দুপুরে এই কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে ফুটপাথে থাকা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়।
এতে ঘটনাস্থলেই কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী আব্দুল করিম রাজীব নিহত হয়। এসময় আরও ১০ থেকে ১২ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। ওইদিন ঘটনায় পর থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন থেকে দাবি উঠে রমিজ উদ্দিন স্কুল ও কলেজটিসহ রাজধানীর সব স্কুল ও কলেজের সামনে জেব্রা ক্রসিং ও স্পিডব্রেকার নির্মাণের। এর পরিপ্রেক্ষিতে এ উদ্যোগ নেয় ডিএনসিসি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর