× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০১৮, রবিবার

শাহ্‌জালাল বিমানবন্দর থেকে ৯০০ মোবাইল ফোন হাওয়া

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার, ৯:৩২

হযরত শাহ্‌জালাল (রঃ) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আমদানিকৃত ৯০০ মোবাইল হ্যান্ডসেটের হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। হংকং থেকে আমদানি করা এসব ফোনসেটগুলোর হদিস না পাওয়ার ঘটনায় সোমবার বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। হ্যান্ডসেটগুলোর আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ছিল এক্সেল টেলিকম প্রাইভেট লিমিটেড। বিমানবন্দর থানা ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মোবাইল আমদানিকারক ওই প্রতিষ্ঠানটি গত ৬ই জুলাই হংকং থেকে ৫টি প্লেট স্যামস্যাং মোবাইল আমদানি করে। দুইদিন পর ৮ জুলাই বাংলাদেশ বিমানের ই-ওয়াই ৯৮০৭ বিমানে হযরত শাহ্‌জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। পরে তা বাংলাদেশ বিমানের তত্ত্বাবধানে ম্যানওয়ার হাউস-২তে সংরক্ষিত ছিল। ১২ই জুলাই আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের মনোনীত সিএন্ডএফ এজেন্ট মমতা ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেড ঢাকা কাস্টমসসহ আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষে মোবাইল হ্যান্ডসেট ছাড় করানোর জন্য গেলে সেখানে ৯শ’ মোবাইলের (১ প্লেট) হদিস মেলেনি। এসব মোবাইল হ্যান্ডসেটগুলো ৮ই জুলাই থেকে ১২ই জুলাইয়ের মধ্যে ম্যানওয়ার হাউস-২ থেকে চুরি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
মোবাইলগুলোর বাজার মূল্য প্রায় ২ কোটি টাকা। দীর্ঘ একমাস পর গত ৬ই আগস্ট সোমবার বিমানবন্দর থানায় প্রতিষ্ঠানটি একটি চুরির মামলা করেছে। মামলাটি তদন্ত করছে পুলিশ। মামলার তদন্তকারী বিমানবন্দর থানার এসআই সুজন ফকির সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। মামলার পিন নম্বরগুলো বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে ছিল। সেগুলো আমরা সংগ্রহ করেছি। ওই মোবাইলগুলো দেশের কোনো স্থানে ব্যবহার করা হচ্ছে কী-না তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তিনি আরও জানান, পুলিশ বিমানবন্দরের ম্যানওয়ার হাউস-২-এর কাছে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা ফুটেজগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। দোষীদের আইনের আওতায় আনার জন্য কাজ করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর