× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার

দিরাইয়ে শতবর্ষী পদ্মবিলকে সরকারিভাবে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণা

বাংলারজমিন

দিরাই (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০১৮, শনিবার, ৮:৩৫

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের পদ্মকানন হিসেবে পরিচিত শতবর্ষী পদ্মবিলকে সরকারিভাবে পর্যটনকেন্দ্র ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বেলা ২ ঘটিকায় বিলের পাড়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) শাহিদুল আলমের সভাপতিত্বে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রতন কুমার তালুকদারের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক পত্মী লুবনা আফরোজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ শফিউল আলম, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মাহাম্মদ হারুন উর রশীদ, ফয়সল রায়হান, ফারজানা আক্তার ববি, আক্তার জাহান সাথী, গাজালা পারভীন রুহী, মঞ্জুর আলম, ইউপি চেয়ারম্যান শিবলী আহমদ বেগ, এহসান চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জগদিশ সামন্ত, প্রেস ক্লাব যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ চৌধুরী, অনলাইন প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক মোশাহিদ আহমদ, রণধির দাস, অসীম কুমার দাস প্রমুখ। এরপর ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে উপজেলার জগদল, সরমঙ্গল ও চরনারচর তিনটি ইউনিয়ন পরিষদে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও লাইব্রেরির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম। উদ্বোধনী বক্তব্যে জেলা প্রশাসক সাবিরুল ইসলাম বলেন, এ পদ্মবিলকে সরকারিভাবে বিশেষ পরিকল্পনার মাধ্যমে আকর্ষণীয় করে তোলা হবে। পদ্ম কাননটি দেখার জন্য দেশ-বিদেশ থেকে পর্যটকরা আসবেন। বেসরকারিভাবে আবাসিক রিসোর্স স্থাপনের জন্য এলাকাবাসীকে আহ্বান জানান তিনি। উল্লেখ্য ৭.৩৩ একর সরকারের খাস খতিয়ানের জায়গার এ বিলে শতবছর পূর্ব থেকে পদ্মফুল ফুটে আসছে।
প্রাকৃতিকভাবেই বিশাল এ জায়গা জুড়ে পদ্মফুল ফুটে আসছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর