× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০১৮, রবিবার

সরকার পতনের আন্দোলনে উত্তাল রোমানিয়া, সংঘর্ষ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ আগস্ট ২০১৮, শনিবার, ১:৪০

সরকার-বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের দেশ রোমানিয়া। শুক্রবার দেশটির রাজধানী বুখারেস্টের রাস্তায় জড়ো হয় লাখো জনতা। তারা সরকারের পদত্যাগের দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে মারমুখী অবস্থান নিয়েছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তারা টিয়ারগ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে আন্দোলনকারীদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু সময় যত গড়াচ্ছে, সেখানে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ তত তীব্র হচ্ছে। বিদেশে অবস্থানকারী অনেক রোমানিয়ান নাগরিক দেশে ফিরে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন।
আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ক্ষমতাসীন সোস্যাল ডেমোক্রেট পার্টির (পিএসডি) সীমাহীন দুর্নীতি, দেশের নি¤œ বেতন কাঠামো ও বিচার ব্যবস্থা দুর্বল করে দেয়ার ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রোমানিয়ানরা রাস্তায় নেমেছে।
তারা সরকারের পদত্যাগ চেয়ে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে। রাজধানী বুখারেস্ট ছাড়াও দেশটির অন্য প্রধান প্রধান শহরগুলোতে আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে। বুখারেস্টের একটি সরকারি ভবনের বাইরের প্রাঙ্গণে জড়ো হয়েছেন বিক্ষোভাকারীরা। অনাকাঙ্খিত সহিংসতা এড়াতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে পুলিশ। তারা বিক্ষোভকারীদের ঘিরে রেখেছে। কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী পুলিশের দেয়া বেষ্টনী অতিক্রমের চেষ্টা করলে পুলিশ টিয়ারগ্যাস ও পিপার স্প্রে নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। তাদেরকে পিছু হটতে বাধ্য করে। বিক্ষোভকারীরা পাথর ও বোতল ছুড়ে পুলিশি অভিযানের প্রতিবাদ জানায়। টিয়ার গ্যাস ও পিপার স্প্রেতে আক্রান্ত বিক্ষোভকারীদের শ্বাসজনিত জটিলতা দেখা দেয়। পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাথরের আঘাতে ১০ পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছে। স্থানীয় সাংবাদিক কিট গিলেট বলেন, রোমানিয়াতে দুর্নীতি দীর্ঘদিন ধরেই একটি বড় সমস্যা। এতে জনগণ ক্ষুব্ধ। তারা সরকারের পরিবর্তন চায়।
প্রসঙ্গত, রোমানিয়া ইউরোপের সবচেয়ে দুর্নীতিপ্রবণ দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম। এছাড়া সম্প্রতি সরকার দেশটির বিচার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়। এতে আদালতের ক্ষমতা হ্রাস করা হয়। পরে অন্য ইউরোপীয় দেশগুলোর তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে দেশটির । ব্রাসেলস রোমানিয়ার বিচার ব্যবস্থাকে কঠোর নজরদারির মধ্যে রেখেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর