× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার

পিতার স্তন্যপান!

রকমারি

প্রিয়াংকা চক্রবর্ত্তী | ১৭ আগস্ট ২০১৮, শুক্রবার, ৯:১৩

নবজাতক শিশুকে জন্মের পর স্তন্যপান করান জন্মদাত্রী মা, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এবার আমেরিকায় ঘটলো অন্যরকম ঘটনা। নবজাতককে স্তন্যপান করান বাবা।

শিশু রোজালিয়ার বাবা ম্যাক্সামিলিয়ান’র ভাষায় সে অভিজ্ঞতা ছিল ‘রোমাঞ্চকর’। ম্যাক্সামিলিয়ানের স্ত্রী এপ্রিল। তার গর্ভাবস্থার শেষ মাসে রক্তচাপ ছিল স্বাভাবিকের থেকে অনেক বেশি। ফলে এক্লামসিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। গর্ভকালীন উচ্চরক্তচাপের কারণে সৃষ্ট এই সমস্যায় মা কোমায় চলে যাওয়ার সম্ভাবনা ও সন্তানের মৃত্যুর ঝুঁকিও থাকে। শারীরিক পরীক্ষার পরপরই তার সঙ্কোচন শুরু হয়ে যায়।
অর্থাৎ সময়ের আগেই প্রসবের পূর্ব লক্ষণ দেখা দেয়। দু’টি অস্ত্রোপচারের পর নার্স বাবার কোলে এনে দেন মেয়ে রোজালিয়াকে। চিকিৎসকরা জানান, প্রি-এক্লামসিয়ার লক্ষণ দেখা দেয়ায় তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

জন্মের পর শিশুকে স্তন্যপান করানো এবং শরীরের স্পর্শ দেয়া অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু মা এপ্রিলের পক্ষে এটা ছিল অসম্ভব। তখন নার্স ম্যাক্সামিলিয়ানকে প্রস্তাব দেন, শিশুটিকে স্তন্যপান করানোর। তিনি বলেন, ‘পুরুষের জন্য খুবই অস্বাভাবিক শোনালেও আমি তাতে রাজি হয়ে যাই। চিকিৎসকরা আমার স্তনের উপর সিরিঞ্জের মাধ্যমে একটা ব্যাগযুক্ত করে দেন, যেখান থেকে রোজালিয়া স্তন্যপান করতে থাকে। আমার সন্তানের প্রয়োজনে তার পাশে থাকতে পেরে আমি অত্যন্ত খুশি এবং গর্বিত।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর