× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার

মানসিক চাপ কমাতে খাবার

শরীর ও মন

অনলাইন ডেস্ক | ২৭ আগস্ট ২০১৮, সোমবার, ১০:৪৮

মানসিক চাপ আমাদেও দৈনন্দিন জীবনে  বেশ বড় একটি কষ্টদায়ক ব্যাপার। নানা কারণে আমরা দিনের বেশির ভাগ সময় মানসিক চাপের মধ্যে কাটাই। আর তার প্রভাব পড়ে আমাদের শরীরের উপরেও। হজমের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, অনিদ্রা, স্নায়ুর সমস্যা ইত্যাদি নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে এই মানসিক চাপ  থেকে। তাই আমাদের প্রথমে মানসিক চাপ দূর করা উচিৎ। অনেকে মনে করতে পারেন, মানসিক চাপ তো চাইলেই দূর করা যায় না! তাহলে কী ভাবে সম্ভব! উপায় আছে। এমন কিছু খাবার রয়েছে যা খেলে মানসিক চাপ দূর হয় নিমেষে। বিশ্বাস হচ্ছে না? একটু চেষ্টা করেই দেখুন!

ডার্ক চকলেট
ডার্ক চকলেট মানুষের অনুভূতি নিয়ন্ত্রণের জন্য অনেক বেশি কার্যকরী একটি খাবার।
চকলেট খেলে ‘এন্ডোরফিন’ নামক হরমোনের নিঃসরণ ঘটে যা আমাদের মানসিক চাপ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে সাহায্য করে।
তবে খেয়াল রাখবেন, সাধারণ মিল্ক চকলেট নয়, ডার্ক চকলেট খাওয়াই স্বাস্থ্যের জন্য ভাল।

সবুজ সবজি
সবুজ সবজি যেমন, ব্রকলি, শসা ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে ফলিক অ্যাসিড এবং ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে। এই উপাদানগুলি আমাদের মস্তিস্কে ভালোলাগার অনুভূতি সৃষ্টি করে। প্রতিদিন ১ কাপ সবুজ শাকসবজি খান। দেখবেন মানসিক চাপের সমস্যা কম হয়ে যাবে অনেকটাই।

কাঠবাদাম
কাঠবাদামে থাকা ভিটামিন বি এবং ভিটামিন ই আমাদের  দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে উন্নত করতে খুবই কার্যকর। যখন আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত থাকে তখন আমরা মানসিক চাপ বা বিষন্নতার মতো সমস্যায় কম ভুগী। তাই প্রতিদিন অন্তত ৫-৬টা কাঠবাদাম খাওয়ার অভ্যাস করুন। উপকার পাবেন।

মিষ্টি আলু
মিষ্টি আলুর সঙ্গেও আমাদের অনুভূতির সম্পর্ক রয়েছে। মিষ্টি আলু খেলে আমাদের মানসিক চাপ দূর হওয়া শুরু হয় দ্রুত। তাই মানসিক চাপে পড়লে মিষ্টি আলু সেদ্ধ করে খেতে পারেন।

চিনি
চিনি বেশি খাওয়া যদিও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, কিন্তু মানসিক চাপ দূর করতে চাইলে সামান্য চিনি খেতে পারেন। এতে আমাদের মস্তিষ্ক উদ্দীপ্ত পেশিগুলি শিথিল হওয়া শুরু করে এবং মানসিক চাপ কম হয়ে যায়। চিনির পরিবর্তে ১ চামচ মধুও খেতে পারেন। তবে ডায়বেটিসের রোগীদের জন্য এই পদ্ধতি উচিৎ নয় একেবারেই।
সূত্র : জি নিউজ

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর