× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার

স্ত্রীর মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন নওয়াজ শরীফ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার, ১১:২৭

মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্তে স্ত্রী কুলসুম নওয়াজকে দেখতে পারলেন না পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। তিনি ও তার মেয়ে মরিয়ম যখন পাকিস্তানের জেলে বন্দি তখন মঙ্গলবার তার স্ত্রী লন্ডনে মৃত্যুবরণ করেন। এ খবর পাওয়ার পর জেলের ভিতর কান্নায় ভেঙে পড়েন তারা। কুলসুল নওয়াজের দাফন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তাদেরকে ১২ ঘন্টার জন্য প্যারোলে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মৃত কুলসুম নওয়াজের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। কুলসুম নওয়াজ দীর্ঘদিন ক্যান্সারে ভুগছিলেন। তাকে রেখে নওয়াজ শরীফ এ বছর মেয়েকে নিয়ে পাকিস্তানে ফেরেন দুর্নীতির অভিযোগে মামলার রায় হওয়ার পর।
পাকিস্তানের মাটি স্পর্শ করার সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে জেলে নেয়া হয়। ওদিকে লন্ডনে ফেলে আসেন তারা ক্যান্সারে আক্রান্ত কুলসুমকে। তাদের জেল হওয়ায় আর তার সঙ্গে তাদের সাক্ষাত হয় নি। মঙ্গলবার মারা যান কুলসুম। এরপর পাকিস্তান সরকার নওয়াজ শরীফ ও মরিয়ম নওয়াজকে প্যারোলে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেছেন, আমরা তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি আবেদন পেয়েছি এবং আল্লাহর ইচ্ছায় আমরা তাদেরকে প্যারোলে মুক্তি দেবো। তিনি আরো বলেন, যেদিন মৃত কুলসুম নওয়াজের দাফন হবে সেদিন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তার মেয়েকে ১২ ঘন্টার জন্য মুক্ত করে দেয়া হবে। লন্ডন থেকে তিন বা চারদিন পরে দেশে আসবে। তারপরই ওই দাফন অনুষ্ঠান হতে পারে।
মৃত্যুর সময় কুলসুম নওয়াজ শরীফের বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তিনি বেশ কয়েক মাস কোমায় ছিলেন। গত বছর তার দেহে লিম্ফোমা সনাক্ত হয়। তার মোটামুটি এক মাস আগে তার স্বামী নওয়াজ শরীফকে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে অপসারণ করে সুপ্রিম কোর্ট। নওয়াজ শরীফের ভাই, পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের প্রধান শাহবাজ শরীফ তার ভাবির মৃত্যু সংবাদ প্রকাশ করেছেন টুইটারে। এতে তিনি বলেছেন, মিয়া নওয়াজ শরীফের স্ত্রী আর আমাদের মাঝে নেই। আল্লাহ তাকে বেহেশত নসীব করুন। এ ঘোষণা শুনে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শোক ও সহমর্মিতা জানিয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তিনি বলেছেন, আইন অনুযায়ী তাদের পরিবারকে সরকার সহায়তা করবে। ইমরান খান টুইটারে লিখেছেন, মহৎ মর্যাদাময় একজন সাহসী নারী ছিলেন তিনি (কুলসুম)। তিনি দৃঢ়তার সঙ্গে রোগ মোকাবিলা করেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর