× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

তামিমের ভাবনায় হাথুরু নয়, জয়

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ৯:৪৮

আর মাত্র একদিন, এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কার। যেখানে টাইগারদের আরেক অদৃশ্য প্রতিপক্ষের নাম- চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। বাংলাদেশের এ সাবেক কোচ বর্তমানে দায়িত্ব সামলাচ্ছেন নিজ দেশের। তাই দলের জন্য নিজের জানা সবটুকু যে উজাড় করে  দেবেন- বলার অপেক্ষা রাখে না। যে কারণে  লঙ্কান ক্রিকেটাররা ব্যাট-বলের বাইরেও মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের বিপক্ষে নিজের বড় শক্তি মনে করেন হাথুরু সিংহেকে। কিন্তু টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল এ সব নিয়ে ভাবতে নারাজ। তার চিন্তায় শুধুই জয়।
ভিসা জটিলতা কাটিয়ে একটু বিলম্বে দুবাইয়ে পৌঁছেন দেশ সেরা ওপেনার। সেখানে যোগ দিয়েছেন অনুশীলনেও। প্রতিপক্ষ নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই স্বাভাবিকভাবে আসে হাথুরুর কথা। বিশেষ করে সাবেক কোচের বিপক্ষে প্রতিশোধের ম্যাচ বলেই অনেকের ধারণা। কিন্তু তামিম বলেন, ‘আমরা হাথুরুসিংহের (শ্রীলঙ্কা) বিপক্ষে প্রতিশোধ নয়, জয়ের জন্য খেলবে বাংলাদেশ। হ্যাঁ, অবশ্যই আমরা আমাদের সাবেক কোচকে হারাতে চাই। তবে খুব ভালো মানসিকতা নিয়ে প্রতিশোধ নেয়ার জন্য নয়।’
শ্রীলঙ্কা বলেই সংবাদ সম্মেলনে বার বার হাথুুরুসিংহের প্রসঙ্গ আসছিল। কিন্তু তামিম স্পষ্ট করেই জানালেন সাবেক কোচের সঙ্গে তাদের নেই কোন দ্বন্দ্ব। বরঞ্চ সুন্দর কিছু কাটানো সময় নিয়েই তিনি ভাবতে চান। কারণ তার হাত ধরেই তামিমরা পেয়েছেন বেশ কিছু অসাধরণ সাফল্য। যা কোনোভাবেই ভুলতে চান না তামিম। তিনি  বলেন, ‘আমরা (দল) তার সঙ্গে অসাধারণ কিছু মুহূর্ত কাটিয়েছি। চার-পাঁচ বছর কেউ কোচ হিসেবে থাকলে সম্পর্কের উত্থান-পতন থাকবেই। কিন্তু কোচ হিসেবে তিনি আমাদের জন্য অসাধারণ কাজ করেছেন। কেউ তার কাছ থেকে এই কৃতিত্ব ছিনিয়ে নিতে পারবে না।’
২০১৪ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত টাইগারদের গুরু হিসেবে কাজ করেছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। তার কোচিংয়ে টেস্ট ও ওয়ানডেতে দারুণ সফল হতে শুরু করে বাংলাদেশ দল। কিন্তু এত ভালো যেন সইছিল না। হঠাৎ করেই ছন্দপতন। গুঞ্জন ছিল প্রতিনিয়তই যে দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে কোচের বনিবনা হচ্ছে না। এরপরই হঠাৎ করে পদত্যাগের ঘোষণা। কিন্তু টাইগারদের ছেড়েও যেন দূরে থাকতে পারলেন না তিনি। প্রথমবারের মতো নিজ দেশ শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচ অ্যাসাইনমেন্ট শুরু করেন এ বাংলাদেশের বিপক্ষেই। সেই থেকে শুরু সাবেক কোচকে প্রতিপক্ষ বানিয়ে নানান আলোচনা। যা চলে নিদাহাস ট্রফি পর্যন্ত। এবার সেই আলোচনা সামনে এসেছে এশিয়া কাপেও। আলোচনা হবে না কেন! বাংলাদেশ সম্পর্কে দারুণ অভিজ্ঞ তিনি। মাশরাফি, সাকিব থেকে শুরু করে দলের তরুণ সদস্য মেহেদী হাসান পর্যন্ত সবারই দুর্বলতা জানেন তিনি। বলতে গেলে মাঠের বাইরে বাংলাদেশের বিপক্ষে লঙ্কার দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবেই হাথুরুকে ভাবা হয়। সে কারণেই আখিলা ধনঞ্জয়া অকপটে নিজেদের শক্তি হিসেবে কোচের নাম বলতে একটুও দ্বিধা করেননি। তিনি বলেন, ‘এটি (হাথুরু বাংলাদেশের সাবেক কোচ) আমাদের জন্য শক্তির জায়গা। সে তাঁদের (বাংলাদেশ) ব্যাটিং-বোলিংয়ের শক্তি ও দুর্বলতার জায়গাগুলো জানে। এখান থেকে ইতিবাচক বিষয়গুলো তুলে নেয়ার ভালো সুযোগ রয়েছে আমাদের।’ তামিম বারবারই বলেছেন লঙ্কানদের হারিয়ে নিজেদের জয়ের কথা। এ জন্য তারা মানসিকভাবে প্রস্তুতও দারুণভাবে। তবে শুধু যে হারানোর চিন্তা করে নামলে জয় আসবে তা নয়। এজন্য কৌশলও অবলম্বন করতে হবে। সেই কৌশল নিয়ে তামিম বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা যেহেতু ভালো দল আর হাথুরুসিংহের মতো কোচ থাকায় আমাদের ভালো ক্রিকেট খেলার কোনো বিকল্প নেই।  শুধু তাঁকে হারানোর কথা ভাবলে কাজ হবে না। খুব ভালো ক্রিকেট খেলার ব্যাপারে অবশ্যই মনোসংযোগ ঠিক রাখতে হবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর