× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাল বউমা তৈরির পাঠ

অনলাইন

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ৬:৫২

সংবাদপত্রের পাত্র-পাত্রীর বিজ্ঞাপনের পাতায় চোখ বুলোলেই চোখে পড়ে পাত্রের পরিবার কি ধরণের লক্ষ্মী, গুনবতী বউমা চান। চাওয়ার আর শেষ নেই। বউকে হতে হবে গৃহকর্মে নিপুণা, সর্বকর্মে পারদর্শিণী। পাত্রের পরিবারের চাহিদার কথা মাথায় রেখেই সম্ভবত ভাল বউমা তৈরির পাঠ দিতে চলেছে ভারতের একটি বিশ্ববিদ্যালয়। মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ভোপালের বারকাতুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই শুরু হচ্ছে তিন মাসের কোর্স। ভালো বউমা হতে চাইলে ভর্তি হয়ে যেতে হবে তাড়াতাড়ি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডি সি গুপ্তা জানিয়েছেন, বিয়ের পর নতুন পরিবেশে মেয়েরা যাতে সহজে মানিয়ে নিতে পাওে সেই জন্যই এই উদ্যোগ। একটি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে সমাজের প্রতি আমাদের একটি দায়িত্ব রয়েছে। আমরা শুধুমাত্র পড়াশুনার গন্ডির মধ্যে আটকে থাকতে পারি না। নববধূরা যাতে নতুন জীবনে মানিয়ে নিতে পারে, সেজন্য তাদের তৈরি করাটাও আমাদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে। কর্তৃপক্ষ মনে করছেন, নারীর স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে এই উদ্যোগ। পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে সাইকোলজি, স্যোশিওলজি এবং ওমেনস স্টাডিজ বিভাগে শুরু হবে এই বিষয়ের পড়াশুনা। পড়ার বিষয়ও এগুলিই।
ডি সি গুপ্তা আরও বলেছেন, আমাদের লক্ষ্য এই কোর্স শেষ হওয়ার পর মেয়েদের মধ্যে যেন সংসার ও সমাজে তাদের অবস্থান স্পষ্ট হয়। সমাজে একটা বদল আনাই আমাদের মূল লক্ষ্য। প্রথমবার ৩০ জন মেয়েকে নিয়ে শুরু হবে। এই কোর্সে ভর্তির জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা কি হবে তা নিয়ে অবশ্য এখনও কেউ কিছু জানাননি। এদিকে সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক কে এন ত্রিপাঠি এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তবে অনেক শিক্ষাবিদের কাছে এটি হাস্যকর উদ্যোগ। এর আগে বারানসি বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ধরণের একটি উদ্যোগ নেওয়ার কথা শোনা গেলেও পরে তা ভুল বলে জানা যায়। তবে এ ক্ষেত্রে কি উদ্যোগের কি পরিণতি হবে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর