× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার

সাহসী মা এক শিশুকে জন্ম দিলেন দু’বার

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার, ৯:২৪

লিনলি হোপ। ৬ বছর বয়সী এই শিশুটির জন্মদিন বছরে দু’বার পালন করা হয়। অবাক করার মতো তথ্য হলেও এটিই সত্য। কিন্তু কেন?

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের বাসিন্দা, মার্গারেট বোয়েমার। তিনি এই শিশুটির মা। মার্গারেটের গর্ভাবস্থার ১৬ সপ্তাহ পার আল্ট্রাসাউন্ডে চিকিৎসকরা অস্বাভাবিক কিছু লক্ষ্য করেন। চিকিৎসকরা জানান ভ্রূণে ধরা পড়েছে টিউমার। জরুরি অস্ত্রোপচারে ১.৩ পাউন্ড ওজনের টিউমারটি ভ্রূণসহ মাতৃগর্ভ থেকে বের করে নেয়া হয়।
কিন্তু বাদ সাধেন মা। তার সন্তান চাই। উপায়ন্ত না দেখে রোগীর মৃত্যুঝুঁকি মাথায় নিয়ে ফের জরায়ুতে স্থাপন করা হয় ভ্রূণটি। এরপর অসুস্থ মার্গারেট ৩৬ সপ্তাহ পর্যন্ত ছিলেন পূর্ণ বিশ্রামে। কিন্তু গর্ভের শিশুটির দেখা দেয় টেরাটমা রোগ। এই রোগের কারণে ভূমিষ্ঠ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে মৃত্যু হয় নবজাতকের। নিজের জীবণকে বাজি রেখে, টেরাটমার কথা মাথায় রেখে মার্গারেট ফের জন্ম দেন সেই শিশুটির। চিকিৎসকদের নানান দুশ্চিন্তাকে পিছু হটিয়ে জন্ম নেয় সুস্থ এক নবজাতক। এবং জন্মের সময় তার ওজন ছিল সাড়ে পাঁচ পাউন্ড।

শিশুটি জন্মের পর চিকিৎসক জানান, অবিশ্বাস্য ব্যাপারটি হলো টেরাটমা এই রোগে আক্রান্ত প্রতি ৩-৭ লাখ শিশুর মধ্যে জীবিত জন্ম নেয় মাত্র একটি শিশু। আর সেই শিশুর দেখা দেয় নানা শারীরিক সমস্যা। কিন্তু লিনলির মধ্যে ছিল না তার কোনো লক্ষণ। আবার মার্গারেটের টিউমার অপারেশনের সময়েও গর্ভের বাইরে ভ্রূণকে রাখা হয়েছিল প্রায় ২০ মিনিট। তার মায়ের অকৃত্রিম ভালোবাসার কারণেই সকল বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে শিশুটি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Abdul Hannan
১২ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার, ৩:২৮

রিপোর্টারের বক্তব্য: ‘‘এই রোগের কারণে ভূমিষ্ঠ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে মৃত্যু হয় নবজাতকের। নিজের জীবণকে বাজি রেখে, টেরাটমার কথা মাথায় রেখে মার্গারেট ফের জন্ম দেন সেই শিশুটির।" আমার প্রশ্ন: ভূমিষ্ঠ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে যে নবজাতকের মৃত্যু হলো দ্বিতীয়বার কি করে সেই একই শিশু জন্ম নিল? এখানে মৃত শিশুটি কি পূণরায় মাতৃগর্ভে প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল? বা কিভাবে হয়েছিল বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিলে খুবই উপকৃত হবো।

মুনির আহমেদের
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, ৬:৫৮

আমি বাকরুদ্ধ। বলার কিছুই নেই। তবুও বলতে হচ্ছে আল্লাহ চাইলে কি না করতে পারেন। এটা আল্লাহর অসীম ক্ষমতার একটি নমুনা মাত্র।

অন্যান্য খবর