× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা রম্য অদম্য
ঢাকা, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার

জেএমবি নিয়ে রাজনাথের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের আলোচনা

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ৭:৫৬

পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খন্ডে জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) এর সাংগঠনিক তৎপরতা নিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রীদের। সোমবার নবান্নে পূর্বাঞ্চলীয় পরিষদের চার রাজ্যের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। এই বৈঠকে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়গুলি বেশি গুরুত্ব পেয়েছে বলে জানা গেছে। সূত্র মতে জানা যায়, চার রাজ্যের নিরাপত্তা বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য বৈঠকে খতিয়ে দেখা হয়েছে। আলোচনা হয়েছে অবৈধভাবে ভারতে বসবাসকারি রোহিঙ্গাদের নিয়েও। এদিনের বৈঠকে রাজনাথ সিংহ্ রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করে তাঁদের বায়োমেট্রিক তথ্য নথিভুক্ত করতে রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিয়েছেন। বৈঠক শেষে এক সংক্ষিপ্ত সাংবাদিক সম্মেলনে রাজনাথ সিংহ বলেছেন, রাজ্যগুলিকে বলা হয়েছে তাঁরা যেন বেআইনি অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের চিহ্নিত করে। তাঁদের বায়োমেট্রিক তথ্য সংগ্রহ করে কেন্দ্রকে রিপোর্ট দেয়।
সেই রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে কূটনৈতিক পথে মায়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করে সমস্যার সমাধান করা হবে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সাম্প্রতিক হিসাব অনুযায়ী ভারতে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারী রয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্তকে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের অন্যতম করিডর হিসাবে চিহ্নিত করেছেন গোয়েন্দারা। এই মুহূর্তে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের বড় অংশই জম্মু-কাশ্মীরে রয়েছে বলে গোয়েন্দাদের দাবি। কলকাতার উপকণ্ঠে বারুইপুরে শিবির করে রয়েছেন কয়েকশো রোহিঙ্গা। এদিনের বৈঠকে রাজনাথ জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ সমস্যা মেটাতে ভারত সরকার উদ্যোগী হয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে রাজনাথ সিংহ জানিয়েছেন, প্রায় তিরিশটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তার মধ্যে ২৬টির সমাধান করা সম্ভব হয়েছে। এদিনের বৈঠকে মাওবাদী সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিনের বৈঠকে রাজনাথ সিংহ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস, বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার এবং ওড়িশার অর্থমন্ত্রী শশীভূষণ বেহেরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর